খালেককে বোরকা পরে বের হতে হবে: মঞ্জু
খুলনা প্রতিনিধি
অ+ অ-প্রিন্ট
বিএনপির মেয়র প্রার্থী নজরুল ইসলাম মঞ্জু
'এই নির্বাচন সর্বকালের ভোট ডাকাতির নতুন রূপ, নতুন সংস্করণ। নারী ভোট ডাকাত এখানে নতুন সংযোজন। ১০৫টি কেন্দ্রে ব্যালট ছিনিয়ে ভোট দেওয়া হয়েছে, ৪৫ টি কেন্দ্রে ভোটারদের আটকে দেওয়া হয়েছে। ভোট ডাকাতির অন্যতম দৃষ্টান্ত এটি। ভোট ডাকাতির এই নির্বাচনে জয়ী হয়েছে তালুকদার আব্দুল খালেক। বলেছেন, খুলনা সিটি করপোরেশন (কেসিসি) নির্বাচনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী নজরুল ইসলাম মঞ্জু। বুধবার সকাল ১১টায় খুলনা মহানগরীর কে ডি ঘোষ রোডে মহানগর বিএনপির কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

সংবাদ সম্মেলনে মঞ্জু বলেন, নির্বাচনে ভোট ডাকাতি হয়েছে। তালুকদার আব্দুল খালেকের পক্ষে বনদস্যু, জলদস্যু, সন্ত্রাসী সবাই প্রকাশ্যে কাজ করেছে। এই অবস্থায় দায়িত্ব নিয়ে তিনি কীভাবে খুলনা মহানগরীকে মাদকমুক্ত, সন্ত্রাসমুক্ত, ভূমিদস্যুমুক্ত  করবেন? আগামীতে খালেককে বোরকা পরে জনগণের সামনে বের হতে হবে, সেই পরিবেশই তিনি তৈরি করলেন।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, নির্বাচনে ভোট ডাকাতির নতুন রূপ প্রকাশ পেয়েছে। ১০৫টি কেন্দ্রে ব্যালট ছিনিয়ে ভোট দেয়া হয়েছে, ৪৫ টি কেন্দ্রে ভোটারদের আটকে দেয়া হয়েছে। ভোট ডাকাতির এই নির্বাচনে জয়ী হয়েছে তালুকদার আব্দুল খালেক।

অন্যদিকে নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার পর এক প্রতিক্রিয়ায় তালুকদার আব্দুল খালেক বলেছিলেন, মঞ্জুকে পাশে নিয়েই তিনি কাজ করতে চান। এ প্রস্তাবও প্রত্যাখ্যান করেন মঞ্জু বলেন, প্রধান ভোট ডাকাত তিনি। তার পাশে থেকে সহযোগিতার কোনো মানসিকতাই আমার নেই। আমি এই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করছি।

নির্বাচনে আওয়ামী লীগ রাজনৈতিক শিষ্টাচার লঙ্ঘন করেছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিএনপি প্রতিটি নির্বাচনে অংশ নেবে। অংশ নেয়ার মধ্য দিয়ে আওয়ামী লীগের চরিত্র ফুটিয়ে তুলবে। সেনাবাহিনী ছাড়া নির্বাচন সম্ভব নয় উল্লেখ করে মঞ্জু বলেন, নির্বাচনে বিজিবি, র‌্যাব ঘুমিয়ে ছিল। পুলিশ সক্রিয় ছিল। সকাল থেকে রিটার্নিং অফিসার ফোন রিসিভ করেননি। এ নির্বাচন প্রমাণ করেছে সেনাবাহিনী ছাড়া নির্বাচন সম্ভব নয়। এসময় তিনি নির্বাচন কমিশনের সমালোচনা করেন।

মঙ্গলবার (১৫ মে) কেসিসিতে প্রথমবারের মতো দলীয় প্রতীকে হওয়া নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী নজরুল ইসলাম মঞ্জুকে ৬৫ হাজার ৬০০ ভোটের ব্যবধানে হারিয়ে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী তালুকদার আব্দুল খালেক। নজরুল ইসলাম মঞ্জু ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ১ লাখ ৯ হাজার ২৫১ ভোট। তালুকদার খালেক পেয়েছেন ১ লাখ ৭৪ হাজার ৮৫১ ভোট।

১৬ মে, ২০১৮ ১৪:০৬:১৮