'ভোটারদের ভয়ভীতি দেখিয়ে নিজেরাই ব্যালট বাক্স ভর্তি করেছে'
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
‘নির্বাচন কমিশনের (ইসি) অযোগ্যতার কারণে খুলনায় পুলিশের হামলার মাধ্যমে বিএনপি কর্মীদের দাঁড়াতে দেয়নি। বিএনপি প্রার্থীর এজেন্টদের কেন্দ্র থেকে বের করে দেয়া হয়েছে। ভোটারদের কেন্দ্রে আসতে বাধা ও ভয়ভীতি দেখিয়ে নিজেরাই নৌকা প্রতীকে সিল মেরেছে। ব্যালট বাক্স ভর্তি করেছে। এই হলো আওয়ামী লীগ ও নির্বাচন কমিশনের সুষ্ঠু ও চমৎকার নির্বাচন।' বললেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। মঙ্গলবার গুলশানে বিএনপির চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের সিনিয়র নেতাদের সঙ্গে বৈঠক শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, এ সরকারের অধীনে কোনো নিরপেক্ষ নির্বাচন হতে পারে না সেটা ফের প্রমাণ হলো। সুষ্ঠু নির্বাচন করতে হলে সরকারে পদত্যাগ করতে হবে, নির্বাচন কমিশনকে পুনর্গঠন করতে হবে, সেনাবাহিনী মোতায়েন করতে হবে।

তিনি বলেন, খুলনা সিটি নির্বাচনে আবারও প্রমাণ হলো এ সরকার ও ইসির অধীনে কোনো নির্বাচন সুষ্ঠু হতে পারে না। তাই আমাদের ও জনগণের দাবি নির্বাচনের আগে সংসদ ভেঙে দিয়ে নিরপেক্ষ সরকার গঠন করতে হবে।

তিনি আরও বলেন, আজ খুলনায় সেনা মোতায়েন থাকলে ফলাফল যাই হোক ভোট ব্যবস্থা এমন হতো না। বিরোধী দল সুন্দরভাবে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারতো।

বিএনপির এ নেতা বলেন, গণমাধ্যমকে সরকার নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করেছে। আমরা খুলনা থেকে খবর পাচ্ছি এক ধরণের, সংবাদমাধ্যমে প্রচার হচ্ছে অন্য ধরণের। আসলে তারা আসল ঘটনা গণমাধ্যমে প্রচার করতে দেয়নি।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু ও আবদুল আউয়াল মিন্টু।

 

১৫ মে, ২০১৮ ২৩:৪০:৫২