'তোমাদের গ্রেপ্তার করার আগে আমাদেরকে গ্রেপ্তার করতে হবে'
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম
অ+ অ-প্রিন্ট


কবি সুফিয়া কামাল হলের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ঘটে যাওয়া ঘটনাকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসের সবচেয়ে লজ্জাজনক ঘটনা বলে চিহ্নিত করেছেন শিক্ষকরা। রোববার সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাজেয় বাংলায় 'সচেতন শিক্ষকবৃন্দ' ব্যানারে এক প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানববন্ধন করেন তারা। কর্মসূচি থেকে ক্যাম্পাসে শিক্ষার পরিবেশ অক্ষুণ্ণ রাখাসহ ৬ দফা দাবি তুলে ধরা হয়। শিক্ষার্থীদের বাদ দিয়ে শিক্ষকরা কোন ধরণের নিরাপত্তা চান না বলেও উল্লেখ করেন তারা। এরআগে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাম্প্রতিক পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ জানিয়ে ১৮ মে উপাচার্যের কাছে খোলা চিঠি দিয়েছিলেন এই শিক্ষকরা।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা বলেন, বেশ কিছুদিন ধরে শিক্ষার্থীদের উপর হামলা নির্যাতন লক্ষ্য করা যাচ্ছে। গভীর রাতে সুফিয়া কামাল হল থেকে শিক্ষার্থীদের বের করে দেয়া হয়েছে। এটা বাংলাদেশের মূল্যবোধের লঙ্ঘন।

সাংবাদিক ও কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ বলেন, তিনি (ঢাবি ভিসি) বলেছেন অভিভাবকদের কাছে ছাত্রীদের হস্তান্তর করেছেন, যা আমার কাছে বেদনাদায়ক মনে হয়েছে। বাংলাদেশে এই প্রথম প্রাতিষ্ঠানিকভাবে নারী নির্যাতিত হলো। ব্যক্তি পর্যায়ে নারী নির্যাতনের ঘটনা ঘটতে দেখছি, কিন্তু প্রাতিষ্ঠানিক পর্যায়ে নারী নির্যাতনের ঘটনা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এই প্রথম হলো। যা আমাদের জন্য লজ্জাজনক। এটা যেন দ্বিতীয়বার না ঘটে প্রশাসনকে তা নিশ্চিত করতে হবে।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ করে শিক্ষকরা বলেন, তোমাদের কোনো ভয় নেই। তোমাদের পাশে আমরা আছি। তোমাদের গ্রেপ্তার করার আগে আমাদেরকে গ্রেপ্তার করতে হবে। এসময় শিক্ষকরা বেশ কিছু দাবি তুলে ধরেন।

সেগুলো হলো- বিশ্ববিদ্যালয় সব ছাত্র-ছাত্রীদের শিক্ষার পরিবেশ নিশ্চিত করতে হবে। অজ্ঞাতনামা, ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে নয়। সুনির্দিষ্টভাবে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে হবে। ভিসির বাসভবনে হামলার সঙ্গে যারা জড়িত তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে। শিক্ষক শিক্ষার্থীদের মর্যাদা সমুন্নত রাখতে হবে। তাদের ব্যক্তিগত গোপনীয়তা রক্ষা করতে হবে।









 


২২ এপ্রিল, ২০১৮ ১৬:২৪:০৩