আ.লীগ কর্মীর বাড়িতে সন্ত্রাসীদের গুলি: সন্তান নিহত, আহত বাবা
হাতিয়া (নোয়াখালী) প্রতিনিধি
অ+ অ-প্রিন্ট
নোয়াখালীর দ্বীপ উপজেলায় স্থানীয় এক  আওয়ামী লীগ কর্মী মো. মিরাজ উদ্দিনের বাড়িতে হামলা চালিয়েছে সন্ত্রাসীরা। এতে মিরাজের ছেলে মো. নিরব উদ্দিন (১০) গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় মিরাজসহ অপর ৫ জন আহত হয়েছেন।

সোমবার সকালে নিহত নিরবের চাচা রাশেদুল ইসলাম নান্টু সন্ত্রাসী হামলায় গুলিবিদ্ধ হয়ে তার ভাতিজা নিরবের নিহত হওয়ার বিষয়টি আরটিভি অনলাইনকে নিশ্চিত করেছেন। এঘটনায় আহতরা হলেন, মিরাজ উদ্দিন, রাশেদুল ইসলাম নান্টু, শাহাদাত হোসেনসহ ৫ জন।

হামলা সম্পর্কে হাতিয়া থানার ওসি কামরুজ্জামান শিকদার জানান, আওয়ামী লীগ নেতা মিরাজ উদ্দিনের সঙ্গে প্রতিপক্ষ মোহাম্মদ আলী গ্রুপের দ্বন্দ্ব চলছিল। রবিবার রাত ৮টার দিকে প্রতিপক্ষের সন্ত্রাসীরা মিরাজের বাড়িতে ঢুকে হামলা চালায় এবং এলোপাতাড়ি গুলি করে। এ সময় টেবিলে বসে বই পড়ছিল মিরাজের ছেলে নিরব। সন্ত্রসীদের গুলিতে নিরবসহ পাঁচজন আহত হন। আহতদের উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দিবাগত রাত ২টার দিকে মারা যায় নিরব। বাকি আহতরা এখনও হাসপাতালে  চিকিৎসাধীন রয়েছেন। নিহতের লাশ ময়না তদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। একই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন নিরবের বাবা মিরাজ। 

গুলিবিদ্ধ মিরাজ উদ্দিন জানান, গত পৌরসভা নির্বাচনে তিনি পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট ছাইফ উদ্দিন আহম্মেদের পক্ষে কাজ করেন। তখন থেকে সংসদ সদস্য আয়শা ফেরদৌসের অনুসারীদের সাথে তার বিরোধ সৃস্টি হয়। রবিবার রাত ৮টার দিকে ডালিম, জুয়েল, কাইউম, মুরাদ বেচু, মহিন ও জিন্নুর নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী তার বাড়িতে এসে এলোপাতাড়ি গুলি ছোঁড়ে। এতে তার ছেলে নিরব বুলেটবিদ্ধ হয়ে মারা যায়। 

১৬ এপ্রিল, ২০১৮ ১২:২৪:২৯