কোটা পদ্ধতি বাতিলে সরকারের পরাজয়: মওদুদ
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম
অ+ অ-প্রিন্ট
বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কোটা পদ্ধতি বাতিলের ঘোষণার মাধ্যমে সরকারের পরাজয় হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ।  তিনি বলেন, এখনই গণমাধ্যমের খবরে দেখলাম। প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা করেছেন যে, বাংলাদেশে কোনো কোটা ব্যবস্থা থাকবে না। উনি (প্রধানমন্ত্রী) শেষ পর্যন্ত বুঝতে পেরেছেন যে, এই কোটা আন্দোলন কত বেগবান হয়েছে। তারা বুঝতে পেরেছেন যে,  এই আন্দোলন যদি চলে  তাহলে তো তাদের ক্ষমতায় থাকাটাই কঠিন হবে। আওয়ামী লীগ যে তাদের ক্ষমতা এই আন্দোলনের মাধ্যমেই হারাতে পারে তা তিনি বুঝতে পেরেই এই সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছেন। তাই আমি বলতে চাই  এবং বলতে চাই, এটা জনগণের বিজয় হয়েছে। সরকারের পরাজয় হয়েছে। বুধবার সন্ধ্যায় জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ লেবার পার্টি আয়োজিত ‘নির্বাচনে সেনা মোতায়েন: নির্বাচন কমিশনারের ভূমিকা’ শীর্ষক আলোচনা এক আলোচনা সভায় তিনি  মন্তব্য করেন।

নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে মওদুদ আহমদ বলেন, এভাবেই আগামীতে আমাদের দাবি প্রতিষ্ঠা করতে হবে। গণ-আন্দোলনের মাধ্যমে বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হবে। আমাদের নির্দলীয় সরকারের ব্যবস্থা কায়েম করতে হবে। আগামীতে একটি সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে সরকারের পরিবর্তন ঘটাতে হবে। 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভিসির বাসভবনে ভাঙচুরের ঘটনার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এই যে ভিসির বাসা ভাঙচুর হলো। তারা (সরকার) এখন চান যে,  এটা তলিয়ে দেখতে হবে। এর মধ্যে নিশ্চয়ই অনেক কিছু আছে। পাকিস্তান আমলে আমরা যখন ছাত্র-আন্দোলন করতাম আমাদের সবাইকে পাকিস্তান সরকার ও প্রশাসন বলতো এরা কমিউনিস্ট। আমাকে পর্যন্ত কমিউনিস্ট বলতো। কেনো কমিউনিস্ট? বলে যে, সরকার বিরোধী হলেই কমিউনিস্ট। এখন আওয়ামী লীগ সরকারের অবস্থা হয়েছে ওইরকম। আওয়ামী লীগ ও তার সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন করলেই বা তার সমালোচনা করলেই সবাই রাজাকার। 

বিএনপির এই স্থায়ী কমিটির সদস্য বলেন, এই মতিয়া চৌধুরী (কৃষিমন্ত্রী)। আমি তো কারো নাম নিয়ে কিছু বলি না। আমার মনে হয়, তার (মতিয়া চৌধুরী) উচিৎ হবে পদত্যাগ করা। তা না হলে সারা জাতির কাছে তাকে নিঃশর্তভাবে ক্ষমা চাওয়া। কারণ এই ছাত্রসমাজ যারা আন্দোলন করছেন তাদেরকে রাজাকার বলে আমরা মনে হয় উনি মুক্তিযুদ্ধের চেতনার প্রতি বিশ্বাসঘাতকতা করেছেন। 

 

১২ এপ্রিল, ২০১৮ ০০:০২:২৩