'আন্দোলন ভিন্নখাতে প্রবাহিত করলে প্রতিহত করা হবে'
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম
অ+ অ-প্রিন্ট


কোটা সংস্কার আন্দোলনকে বানচাল ও বিতর্কিত করার জন্য কুচক্রি একটি মহল উপাচার্যের বাড়িতে হামলা চালিয়েছে। মঙ্গলবার সকালে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন আন্দোলনকারীদের একাংশ। এসময় তারা সরকারের একমাস সময় বেঁধে দেয়ার পরিপ্রেক্ষিতে আন্দোলন সাময়িক স্থগিত রাখতে সাধারণ শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান জানান। আন্দোলন ভিন্নখাতে প্রবাহিত করলে তাদের প্রতিহত করারও ঘোষণা দেন তারা। এছাড়া সরকারি নিয়োগে বিদ্যমান কোটা পদ্ধতির সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনকারীদের নিয়ে জাতীয় সংসদে কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরীর দেয়া বক্তব্য প্রত্যাহার না করলে আবারো অবরোধ করে দেশ অচল করার ঘোষণা দিয়েছেন আন্দোলনকারীরা। একই সাথে আগামী ৭ মের মধ্যে দাবি মেনে না নিলে ফের অবরোধ কর্মসূচীর ঘোষণা দেন তারা। ‘বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ’র ব্যানারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন কোটা সংস্কার আন্দোলনের যুগ্ম-আহ্বায়ক রাশেদ খান।

এসময় তিনি বলেন, আজ বিকেল ৫টার মধ্যে কোটা পদ্ধতির সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনকারীদের নিয়ে দেয়া বক্তব্য মতিয়া চৌধুরী প্রত্যাহার করে না নিলে এবং এ বক্তব্যের জন্য ক্ষমা না চাইলে আমরা সারাদেশে অবরোধ কর্মসূচী পালন করব। তিনি আরো বলেন, আগামী ৭ মে'র মধ্যে যদি কোটা সংস্কারের পাঁচ দফা দাবি মেনে নেয়া না হয় তাহলে সারাদেশে অবরোধ কর্মসূচি দেয়া হবে।

রাশেদ খান আরো বলেন, উপাচার্যের বাসভবনে হামলাকারীরা চলমান আন্দোলনের সাথে যুক্ত নয়। তারা বিশ্ববিদ্যালয়েরও কেউ নয়। তিনি বলেন, আমরা এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। এসময় তিনি হামলাকারী পুলিশদের শাস্তি ও ক্ষতিপূরণের দাবি জানান।

আন্দোলনের নতুন কমিটি নিয়ে তিনি বলেন, নতুন কমিটি যারা করেছে তারা স্বার্থ হাসিলের জন্যই করেছে। আমাদের ব্যানার ব্যতীত কেউ যদি অন্য ব্যানারে আন্দোলন করে তাদেরকে আমরা প্রতিহত করব।



 


১০ এপ্রিল, ২০১৮ ১৮:০৭:৩০