নেপাল থেকে আসছে ২৩ বাংলাদেশির মরদেহ, বিকালে হস্তান্তর
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
ঢাকার পথে নেপালে বিমান দুর্ঘটনায় নিহত ২৩ বাংলাদেশির মরদেহ। সোমবার দুপুরে ঢাকায় পৌঁছানোর কথা রয়েছে মরদেহবাহী বিমানের। হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ভিভিআইপি টারমাক-১ এ অবতরণ করবে মরদেহবাহী বিমান। সেখান থেকে মরদেহগুলো নেয়া হবে আর্মি স্টেডিয়ামে। সেখানে উপস্থিত থাকবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বিকাল ৪টায় সেখানে জানাজা শেষে মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

এর আগে স্থানীয় সময় সোমবার সকালে কাঠমান্ডুতে বাংলাদেশ দূতাবাসের কাছে নিহত ২৩ জনের মরদেহ হস্তান্তর করা হয়। এর পর পৌনে ৯টার দিকে দূতাবাসের উদ্যোগে নিহতদের প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এতে বাংলাদেশ দূতাবাসের কর্মকর্তারা অংশ নেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন নেপাল সরকারের ঊর্ধ্বতন প্রতিনিধিরাও।

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ইমরান আফিফ জানান, দূতাবাস থেকে মরদেহগুলো বেলা ১১টা থেকে সাড়ে ১১টার দিকে ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নেয়া হবে। এর পর প্রথমে নিহতদের স্বজনরা বিমান বাংলাদেশের একটি বিমানে করে দেশের পথে রওনা দেবেন।

এর আধা ঘণ্টা পর মরদেহ নিয়ে রওনা হবে দুটি বিমান। এর একটি বেসরকারি ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের, অন্যটি বিমানবাহিনীর। মরদেহ ও নিহতদের স্বজনরা দুপুরে ঢাকায় পৌঁছবেন। এর পর এয়ারপোর্টে দুজন করে স্বজন ভেতরে ঢোকার সুযোগ পাবেন। নেপাল থেকে যে স্বজনরা বাংলাদেশ ফিরবেন তারা ইমিগ্রেশনের কাজ শেষ করার পর অপেক্ষা করবেন।

কে কোথায় মরদেহ নিতে চান ইউএস-বাংলাকে জানালে মরদেহ সেখানে পৌঁছে দেয়া হবে। মরদেহ পরিবহনের জন্য প্রয়োজনীয়সংখ্যক অ্যাম্বুলেন্সের ব্যবস্থা বিমানবন্দরে থাকবে। নেপালের ত্রিভুবন ইউনিভার্সিটি টিচিং হাসপাতালে ২৩ বাংলাদেশির মরদেহ শনাক্তের কথা জানানো হয়েছে। ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বিমান বিধ্বস্তের পাঁচ দিন পর ফরেনসিক পরীক্ষা শেষে এসব মরদেহ উপস্থিত নিকটাত্মীয়দের দেখানোর ব্যবস্থা করা হয়।

১৯ মার্চ, ২০১৮ ১২:২৫:০২