খালেদা জিয়ার ওয়ারেন্ট কুমিল্লা কারাগারে
কুমিল্লা প্রতিনিধি
অ+ অ-প্রিন্ট


বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে জারি করা গ্রেপ্তারি পরোয়ানায় গ্রেপ্তার দেখানোর আবেদন গ্রহণ করে আদালতে উপস্থাপনের জন্য প্রজেকশন ওয়ারেন্ট কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়েছে। কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের জগমোহনপুর এলাকায় যাত্রীবাহী নৈশকোচে পেট্রলবোমা হামলায় ৮ যাত্রী হত্যার এ মামলায় খালেদা জিয়াকে আসামি করা হয়। আজ (সোমবার) কুমিল্লার ৫ নম্বর আমলী আদালতের দায়িত্বপ্রাপ্ত বিচারক মো: মুস্তাইন বিল্লাহ এ পরোয়ানা জারি করেন।

বিকাল সাড়ে তিনটায় প্রজেকশন ওয়ারেন্ট কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগারে পৌঁছে দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন কুমিল্লার আদালতের পরিদর্শক সুব্রত ব্যানার্জি। মামলার পরবর্তী শুনানি দিন ঠিক রয়েছে ২৮ মার্চ। এর আগে এই গ্রেপ্তারি পরোয়ানা ২৪ এপ্রিলের তামিল করার নির্দেশ দিয়েছিলেন একই আদালত।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ এ মামলায় ৭৭ জন আসামির মধ্যে ৪৭ জনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি রয়েছে। জামিনে আছেন ২৯ জন এবং জেল হাজতে রয়েছে একজন।  

গত ২ জানুয়ারি দুপুরে কুমিল্লার অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ও ৫ নম্বর আমলী আদালতের দায়িত্বপ্রাপ্ত বিচারক বেগম জয়নব বেগম বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াসহ বিএনপি-জামায়াতের কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় ৫৫ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন।

খালেদা জিয়ার আইনজীবী কাইমুল হক রিংকু জানান, আমরা জামিনের আবেদন তৈরি করে প্রস্তুত ছিলাম। কিন্তু বিএনপি চেয়ারপারসনকে শোন এরেস্ট দেখানো হয়নি। তিনি জানান, আদালত আগামী তারিখের আগে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা তামিল করতে নির্দেশ দিয়েছেন।

সোমবার জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত কারাবন্দী বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে চার মাসের জামিন দিয়েছেন হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ।











 


১২ মার্চ, ২০১৮ ১৯:৫৯:১৪