সন্তানকে বিমানবন্দরে ফেলে রেখে চলে গেলেন মা
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
মা এবং সন্তানের ভালবাসা পৃথিবীর সব সম্পর্ককে হার মানায়। কিন্তু সম্প্রতি এমন এক ঘটনা সামনে এসেছে, যা সত্যিই আপনাকে মা–সন্তানের সম্পর্ক এমন হতে পারে তা নিয়ে ভাবতে বাধ্য করবে। টাক্সন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের একটি ভিডিও সবাইকে হতবাক করে দিয়েছে। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, এক অন্তঃসত্ত্বা মহিলা নিজের সদ্যোজাত সন্তানকে না নিয়েই হেঁটে চলে যাচ্ছেন। বিমানবন্দরের ভিডিওতে পাওয়া ফুটেজে দেখা গিয়েছে, রাত ৯’‌টা নাগাদ ওই মহিলা শৌচালয়ে তাঁর শিশুর জন্ম দেন এবং শিশুটিকে না নিয়ে বরং তার কাছে একটি চিঠি লিখে সদ্যোজাতকে বিমানবন্দরে ফেলে রেখে চলে যান। বিমানবন্দরের কর্মী প্রথম ওই শিশুটিকে দেখতে পায়। 

চিঠিতে লেখা রয়েছে, ‘‌আমি শুধু আমার সন্তানের জন্য সেরাটা চাই, যেটা আমি নই। আমায় ক্ষমা করবেন’‌। শিশুটিকে শৌচালয়ের মধ্যে থেকে উদ্ধার করা হয়। তখনও তার নাড়ি রজ্জু কাটা হয়নি।

শিশুটির যাতে কোনও ক্ষতি না হয় তার জন্য তাকে ওষুধ দিয়ে রাখা হয়েছিল। শিশুর কাছে রাখা চিঠির প্রথমাংশে লেখা ছিল, ‘‌দয়া করে আমায় সাহায্য কর। আমার মায়ের কোনও ধারণাই ছিল না যে তিনি অন্তঃসত্ত্বা। আমায় দেখভালের জন্য আমার মা একেবারেই অক্ষম এবং অযোগ্য। দয়া করে আমায় কর্তৃপক্ষের কাছে নিয়ে যাওয়া হোক, তারাই আমায় একট ভাল পরিবার দেবে।’‌ শৌচালয়ের ভেতর থেকে রক্ত পাওয়া গিয়েছে, বেশকিছু রক্তমাখা কাপড়, টাওয়াল ডাস্টবিন থেকে পাওয়া যায়। চোখ বন্ধ অবস্থায় শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়েছে।  

বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, শিশুটির স্বাস্থ্য ভাল আছে। শিশুটিকে বিমানবন্দরের কাছের একটি হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। শিশুটি এখন আরিজোনার শিশু সুরক্ষা বিভাগের তত্ত্বাবধানে আছে। বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ ওই মহিলার ফটো ও চিঠি প্রকাশ্যে এনেছে। খোঁজ চলছে শিশুটির মায়ের। সূত্র: আজকাল

 

১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ১১:৫০:৫৩