নারায়ণগঞ্জে পিস্তল হাতে রাস্তায়, তারপর গণপিটুনি [ভিডিও]
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম
অ+ অ-প্রিন্ট
হাতে পিস্তল নিয়ে রীতিমতো ফিল্মি কায়দায় গিয়েছিলেন মিছিল রুখতে৷ মিছিল রুখতে পারেননি, বরং গণপিটুনির মুখে পালিয়ে বেঁচেছেন ‘শামীম ওসমানের লোক’ হিসেবে পরিচিত নিয়াজুল৷ নারায়ণগঞ্জের এই ভিডিওই এখন ভাইরাল৷

মঙ্গলবার হকার উচ্ছেদকে কেন্দ্র করে উত্তাল হয়ে ওঠে নারায়ণগঞ্জ৷ বিকেল সোয়া চারটার দিকে নগর ভবনের সামনে আওয়ামী লিগের নেতাকর্মীদের নিয়ে অবস্থান করেন মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী৷ সেখান থেকে মিছিল নিয়ে তিনি চাষাঢ়ার দিকে যান৷ পাঁচটা নাগাদ মিছিল পৌঁছায় সায়াম প্লাজার কাছে৷ সেখানে কয়েকজন হকারকে ফুটপাথ থেকে সরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা হয়৷ শুরু হয় বাকবিতণ্ডা৷ মেয়রের মিছিল আটকানোর চেষ্টা করে পুলিশ৷ সেই সময় এক হকারকে মারধর করা হলে উত্তেজনা আরও বৃদ্ধি পায় বলে অভিযোগ৷ আর ঠিক তখনই পিস্তল হাতে নিয়ে ঘটনাস্থলে আবির্ভূত হন নিয়াজুল৷

স্থানীয়রা জানায়, নিয়াজুল যুব লীগের নেতা৷ পিস্তল হাতে তিনি মিছিলটিকে ভয় দেখানোর চেষ্টা করেছিলেন বলে অভিযোগ৷ কিন্তু শেষরক্ষা হয়নি৷ উত্তেজিত জনতা প্রথমে ঘিরে ফেলে নিয়াজুলকে৷ তারপর শুরু হয় মারধর৷ বেশখানিকক্ষণ তাকে রাস্তায় ফেলে পেটানোর পর ছেড়ে দেওয়া হয়৷

স্থানীয়দের কেউ কেউ বলছেন, নিয়াজুল সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমানের অনুসারী৷ এক বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলকে দেয়া সাক্ষাৎকারে শামীম ওসমান নিয়াজুলকে ‘পরিচিত’ উল্লেখ করে জানান,  নিয়াজুলের বড় ভাই সুইটকে বিএনপি আমলে ক্রসফায়ারে হত্যা করা হয়৷ তাছাড়া চাষাঢ়া এলাকায় নিয়াজুলের বিশাল মার্কেট আছে বলেও জানান তিনি৷



১৮ জানুয়ারি, ২০১৮ ১১:১৯:১৪