'সাবমেরিন যে পানিতে ডুবে থাকে এ জ্ঞানটুকুও তার নেই'
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম
অ+ অ-প্রিন্ট
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, জনগণ ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছে বলেই এই সরকার চার বছর পার করেছে। শনিবার সন্ধ্যায় গণভবনে আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সংসদের সভায় বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন বুলেটের মাধ্যমে নয়, ক্ষমতা বদল হবে ব্যালটের মাধ্যমে। শনিবার দলের কার্যনির্বাহী সংসদের সভায় সূচনা বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

এছাড়া তিনি আরো বলেন, আল্লাহ যদি বাঁচায় তারা আমার জীবন নেবে কিভাবে। আমার বাবা মা ভাই বোনকে হত্যা করে এরপর আমার উপর হামলা। খালেদা জিয়ার স্বামী আমার বাবা কে মা কে হত্যা করেছে। আর তিনি এসে আমার ওপর বার বার হত্যার চেষ্টা করেছেন। যখন তারা পারেনি অপবাদ দেয়ার চেষ্টা করেছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মানসিক সমস্যা দেখা দিলো কিনা, সেটাও বলতে পারছি না। পরীক্ষা করে দেখা দরকার, তার মাথা ঠিক আছে কিনা। পদ্মা সেতু ও সাবমেরিন নিয়ে এতটুকু জ্ঞান তার নেই। 

প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরসহ কেন্দ্রীয় কমিটির অধিকাংশ নেতা বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, কয়েকদিন আগে পদ্মা সেতুর বিষয়ে খালেদা জিয়া বলেন, জোড়াতালি দিয়ে পদ্মা সেতু করা হচ্ছে। কেউ এই পদ্মা সেতুতে উঠবেন না। আমরা দেখবো, খালেদা এবং বিএনপি নেতারা পদ্মা সেতুতে ওঠেন কিনা।

শেখ হাসিনার সরকারের কেনা ২টা সাবমেরিন উদ্বোধনের পরই ডুবে গেছে। খালেদা জিয়ার এমন মন্তব্যের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা নৌবাহিনীর জন্য সাবমেরিন কিনেছি। খালেদা জিয়া বলেন, তা পানিতে ডুবে গেছে। কিন্তু সাবমেরিন যে পানিতে ডুবে থাকে, এ জ্ঞানটুকুও তার নেই।

শেখ হাসিনা বলেন, বিএনপি গণতন্ত্রের কথা বলে, গণতন্ত্র হত্যার কথা বলে। পাল্টা প্রশ্ন করে তিনি বলেন, জিয়াউর রহমান কোনো গণতান্ত্রিক পন্থায় ক্ষমতায় এসেছিলেন? রাষ্ট্রপতি আবু সায়েম এর কাছ থেকে জিয়া কেমন করে বন্দুকের নল ধরে ক্ষমতা নিয়েছিলেন তা সায়েম সাহেবের লেখা বইয়ে বিস্তারিত বলা আছে। তিনি বইটি সবাইকে পড়ার আহ্বান জানান।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, জিয়া মারা যাওয়ার সময় ভাঙা সুটকেস আর ছেঁড়া গেঞ্জি রেখে গিয়েছিলেন। সেটা থেকে কিভাবে এত দামি গাড়ি, দামি শাড়ি ও দামি দামি লঞ্চ বের হয়। জনগণের টাকা লুটপাট করেই তারা এ গুলো করেছে। খালেদার চরিত্র হলো জনগণের অর্থ সম্পদ লুটপাট, হত্যা ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড করে নিজেদের আখের গোছানো।

শেখ হাসিনা বলেন, যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বঙ্গবন্ধু শুরু করেছিলেন। যারা পাকিস্তানি পাসপোর্ট নিয়ে চলে গিয়ে ছিলেন তাদের নাগরিকত্ব বাতিল করে দিয়েছিলেন। জিয়াউর রহমান ক্ষমতায় এসে তাদের নাগরিকত্ব দেয়, ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দেয়। যারা স্বীকৃত খুনি তাদের বিদেশি দূতাবাসে চাকরি দিয়ে পুরস্কৃত করেছে জিয়া।

 

০৬ জানুয়ারি, ২০১৮ ২৩:১৮:৩৮