'জিয়া বাংলাদেশের রাজনীতিতে চার নম্বর মীরজাফর'
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম
অ+ অ-প্রিন্ট
জাসদ সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, যুদ্ধাপরাধী-রাজাকার এবং সাম্প্রাদয়িকতার বিষবৃক্ষ বিএনপিকে রোপণ করে জিয়াউর রহমান। তিনি বাংলাদেশের রাজনীতিতে চার নম্বর মীরজাফর হিসেবে নিজের নাম লিখিয়েছেন। শুক্রবার (৮ ডিসেম্বর) সকালে কুষ্টিয়ার মিরপুরে পাকহানাদার মুক্ত দিবস উপলক্ষে উপজেলা অডিটোরিয়ামে আয়োজিত আলোচনা সভায় যোগ দেয়ার আগে, নাখে খত দিয়ে নির্বাচনে যাওয়ার প্রশ্নই উঠে না বরং সব দলের অংশগ্রহণে নির্বাচন করতে সরকারকে বাধ্য করা হবে বিএনপির এমন মন্তব্যের প্রেক্ষিতে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

রংপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বিএনপির সেনাবাহিনী মোতায়েনের দাবির প্রশ্নে তথ্যমন্ত্রী বলেন, সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে সেনাবাহিনী থাকা না থাকা এটা কমিশনের বিষয়। তিনি বলেন, ৯১, ৯৬ ও ২০০১ সালে নির্বাচনে সেনাবাহিনী থাকার পরও বিএনপি সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছেন। সুতরাং খালেদা জিয়া কোনো নির্বাচনের ফলাফল মানেননি। যখন উনি পরাজিত হয়েছেন। সুতরাং নির্বাচনে সেনাবাহিনী চাওয়া মানে একটা কুট তর্ক তৈরি করা, কার্যত নির্বাচনকে বানচাল করার একটা পাঁয়তারা ছাড়া আর কিছুই না।

তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার চ্যালেঞ্জ হচ্ছে কিভাবে নির্বাচনে খুনিদের রক্ষা করা যায়, আমাদের চ্যালেঞ্জ হচ্ছে কিভাবে খুনীদের হাত থেকে বাংলাদেশের রাজনীতি, সংসদ, গণতন্ত্র এবং ক্ষমতাকে দুরে রাখা যায়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এস এম জামাল উদ্দিন আহমেদ, জেলা জাসদের সভাপতি গোলাম মহসিন, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার নুরে আলম সিদ্দিকী, পৌর মেয়র হাজী এনামুল হক, উপজেলা পরিষদের ভাইস-চেয়ারম্যান বাহাদুর শেখ, জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আলিম স্বপন, জাসদ কেন্দ্রিয় নেতা মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের সাবেক কমান্ডার আফতাব উদ্দিন খান, নজরুল করিম, উপজেলা জাসদের সভাপতি মহম্মদ শরীফ, সাধারণ সম্পাদক আহাম্মদ আলী প্রমুখ।

 

 

 

০৮ ডিসেম্বর, ২০১৭ ১৪:৪৩:১৫