তদন্তের নামে ছাত্রীর ঘরে পুলিশ অফিসার!
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
মোবাইলে অশালীন এসএমএস পাঠাতেন অভিযুক্ত পুলিশ অফিসার, অভিযোগ ছাত্রীর
বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের এমএ পাঠরতা এক ছাত্রীকে কুপ্রস্তাব পাঠানোর অভিযোগ উঠল নৈহাটি থানার এক অফিসারের বিরুদ্ধে। কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ওই অফিসার তাঁকে ধর্ষণের হুমকি দিয়েছেন বলেও দাবি করেছেন অভিযোগকারিণী।

পৈতৃক সম্পত্তি নিয়ে বিবাদের জেরে নৈহাটি থানার দারস্থ হয়েছিলেন ছাত্রীর মা। এর পরে সেই ঘটনার তদন্ত করতে ওই ছাত্রীর বাড়িতে আসেন তদন্তকারী অফিসার তপন শীল। নানা অছিলায় জোর করে ওই সাব-ইন্সপেক্টর ছাত্রীটির ঘরে ঢুকে পড়তেন বলেও অভিযোগ। ছাত্রী বাধা দিতেই ওই অফিসার হুমকি দেন বলেও অভিযোগ ওই পরিবারের।

একই সঙ্গে তপন শীল নামে ওই অফিসার ছাত্রীর মোবাইলে এসএমএস করেও তাঁকে প্রেম নিবেদন করতেন বলে দাবি ছাত্রীর পরিবারের। প্রস্তাবে সাড়া না দেওয়ায় ওই অফিসার কুপ্রস্তাব দেওয়া শুরু করেন।

পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে পৌঁছয় যে ভয়ে বাড়ি থেকে বেরনো বন্ধ করে দেন ওই ছাত্রী। শেষ পর্যন্ত ব্যারাকপুরের পুলিশ কমিশনার সুব্রত মিত্রকে অভিযোগ জানায় ছাত্রীর পরিবার। তাতেও অবশ্য ওই সাব-ইন্সপেক্টরের উৎপাত কমেনি বলেই দাবি অভিযোগকারিণীর।

পুলিশ অফিসারের ভয়ে এখনও গৃহবন্দি হয়েই দিন কাটছে ছাত্রীর। রক্ষকই ভক্ষকের ভূমিকায় নেওয়ায় আতঙ্কে দিন কাটছে তাঁদের। যদিও, অভিযুক্ত পুলিশ অফিসারের কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ১৪:১০:৫৩