পড়ে গেলেন এমপি, বরখাস্ত হলেন স্টেশন মাস্টার
সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি
অ+ অ-প্রিন্ট
সিরাজগঞ্জ-৪ (উল্লাপাড়া) আসনের সংসদ সদস্য তানভীর ইমাম
চলন্ত ট্রেন থেকে নামতে গিয়ে পা পিছলে সংসদ সদস্য পড়ে যাওয়ায় স্টেশন মাস্টারকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। সিরাজগঞ্জ-৪ (উল্লাপাড়া) আসনের সংসদ সদস্য তানভীর ইমাম তার স্ত্রীকে ট্রেনে তুলে দিয়ে চলন্ত ট্রেন থেকে নামার সময় এ দুর্ঘটনা ঘটে। গতকাল বুধবার পাকশীর বিভাগীয় ব্যবস্থাপক (ডিআরএম) অসিম কুমার তালুকদারের নির্দেশে স্টেশন মাস্টারকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

সংসদ সদস্য ট্রেন থেকে পড়ে যাবার পর তার সমর্থকরা সহকারী স্টেশন মাস্টার আব্দুল বাতেনকে মারধর করে। এ দু’টি ঘটনা তদন্তে পাকশী রেল বিভাগ থেকে দুই সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। পাকশীর বিভাগীয় ব্যবস্থাপক (ডিআরএম) অসিম কুমার তালুকদার এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।

স্টেশন মাস্টারের অভিযোগ ও প্রত্যক্ষদর্শীদের সূত্রে জানা গেছে, গত সোমবার বিকাল পৌনে তিনটার দিকে ঢাকাগামী চিত্রা ট্রেনে স্ত্রীকে তুলে দিয়ে চলন্ত ট্রেন থেকে নামতে গিয়ে পা পিছলে পড়ে যান উল্লাপাড়ার সংসদ সদস্য তানভীর ইমাম। এরপর স্টেশনে থাকা লোকজন ও তার সমর্থকরা তাকে ধরাধরি করে স্টেশন মাস্টারের কক্ষে বসিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দেন। এরই এক পর্যায়ে সংসদ সদস্যের সমর্থকরা সহকারি স্টেশন মাস্টার আব্দুল বাতেনের কক্ষে ঢুকে তাকে চড়-থাপ্পড় মারেন। সিগনালের পতাকার লাঠি দিয়ে বেধড়ক পেটানো হয় তাকে।

সহকারি স্টেশন মাস্টরকে মারধরের বিষয়টি তানভীর ইমাম অস্বীকার করে বলেন, আমি উপস্থিত থাকাকালে কোনও ধরনের মারধরের ঘটনা ঘটেনি। বরং স্টেশন মাস্টাররা নিজেরা বাঁচতে সাংবাদিকদের মিথ্যে তথ্য দিয়েছে।

এসব ঘটনা তদন্তে পাকশী রেল বিভাগ থেকে বিভাগীয় ট্রাফিক অফিসার (ডিটিও) শওকত জামিল মোহসী ও ট্রাফিক কমার্শিয়াল অফিসার (টিসিও) আনোয়ার হোসেনের সমন্বয়ে এই কমিটি গঠন করা হয়। কমিটিকে আগামী রোববারের মধ্যেই তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

 

 

 

 

০৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ১০:১৪:০২