মজা করে কাউয়া ও ফার্মের মুরগি বলেছেন ওবায়দুল কাদের
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম
অ+ অ-প্রিন্ট
আওয়ামী লীগে ফার্মের মুরগি ঢুকেছে। ‘কাউয়ার’ পর দলের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহনমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের এমন বক্তব্যে ব্যাপক আলোচনা ও সমালোচনা শুরু হয়েছে আওয়ামী লীগের তৃণমূলসহ সর্বস্তরে। আওয়ামী লীগ নেতারা বলছেন, কাউয়া ও ফার্মের মুরগি দু’টোই অনুপ্রবেশকারী অর্থে বলেছেন সাধারণ সম্পাদক। দলের তৃণমূল মনে করে, দলের মধ্যে যদি সত্যি অনুপ্রবেশকারী ঢুকে থাকে, এ বিষয়ে সুনির্দিষ্ট জরিপ হওয়া প্রয়োজন। এর আগে আওয়ামী লীগে ‘কাউয়া’ ঢুকেছে বলে ব্যাপক আলোচনা ও সমালোচনার জন্ম দেন দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

এদিকে, দলে অবাঞ্ছিতদের অনুপ্রবেশ বোঝাতে দলের কিছু নেতাকর্মীকে ‘কাউয়া’ বা ‘ফার্মের মুরগি’ উপমা দিয়ে সমালোচনায় পড়া ওবায়দুল কাদের এসব শব্দ না লিখতে সাংবাদিকদের প্রতি অনুরোধ করেছেন। দলের নেতাকর্মীদের রিফ্রেশমেন্টের জন্য মজা করে তিনি এমন শব্দ ব্যবহার করেছেন বলে সাংবাদিকদের জানান। বুধবার সন্ধ্যায় ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের সম্পাদকমণ্ডলীর সভা শেষে সাংবাদিকদের কাছে তিনি এই অনুরোধ জানান। জনসভায় এসে তিন-চার ঘণ্টা বসে থাকা নেতাকর্মীদের চাঙা করতে মজা করে এসব শব্দ ব্যবহার করেছিলেন বলেও দাবি করেন তিনি।

সম্প্রতি সিলেটে দলের এক প্রতিনিধি সভায় ‘সংগঠনে কাউয়া ঢুকেছে’ বলে মন্তব্য করে সমালোচনার মুখে পড়েন ওবায়দুল কাদের। এর রেশ কাটতে না কাটতেই গত ১৭ এপ্রিল মেহেরপুরের মুজিবনগরে এক আলোচনা সভায় তিনি বলেন, ‘সিলেটে বলেছিলাম, কাউয়া, এখানে আর কাউয়া বলবো না। কিন্তু এখানেও মনে হয় ফার্মের মুরগি ঢুকে গেছে। দেশি মুরগি দরকার, ফার্মের মুরগি দরকার নাই। এটা স্বাস্থ্যকর নয়।’

মুজিবনগরের আলোচনায় তিনি আরও বলেছিলেন, ‘দেশি মুরগি কোণঠাসা হয়ে যাচ্ছে, ফার্মের মুরগি ঢুকতেছে। একটু খেয়াল রাইখেন।’ এরপর জনসভায় উপস্থিত কর্মীদের ‍উদ্দেশ্য করে মঞ্চে উপস্থিত নেতাদেরকে দেখিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘ওখানে কোনো সমস্যা সেই, এইখানে সমস্যা। এই যে দেখেন, পুরা মঞ্চে নেতা, তো আর নেতা, বিলবোর্ডে দেখি আতি নেতা, পাতি নেতা, ছোট নেতা, বুড়া নেতা, সিকি নেতা, আধুলি নেতা, নেতার আর অভাব নাই।’

দলের সাধারণ সম্পাদকের এমন বক্তব্যে অনেক নেতাকর্মী ক্ষোভ প্রকাশ করেন। এমন উপমা ব্যবহার করে তিনি দলের কর্মীদের অপমান করেছেন বলে অনেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লেখেন।

 

২০ এপ্রিল, ২০১৭ ০৯:০০:৫৬