'রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে জিয়ানগরের নাম পরিবর্তন করা হয়েছে'
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম
অ+ অ-প্রিন্ট
রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়েই পিরোজপুর জেলার ‘জিয়ানগর’ উপজেলার নাম পরিবর্তন করা হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ।

মঙ্গলবার নয়াপল্টন দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি এ মন্তব্য করেন।

রিজভী বলেন, পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে যে সমস্ত বীর সন্তানরা মাতৃভূমির জন্য লড়াই করেছেন তাদের নামে সড়ক, মহাসড়ক, স্থান, ভবন ইত্যাদির নামকরণ করা হয়েছে। কোলকাতার অনেক রাস্তাঘাটের নাম ইংরেজ সিভিলিয়ানদের নামে ছিল, স্বাধীনতার পর সেটি পরিবর্তন করে সেখানে কীর্তিমান স্বাধীনতা সংগ্রামীদের নাম দেওয়া হয়েছে। শুধুমাত্র বর্তমান বাংলাদেশ হচ্ছে পৃথিবীতে একটি ব্যতিক্রমী দেশ, যেখানে সরকারের দিন রাত্রি কাটে হিংসা বিদ্বেষ আক্রোশ আর রাজনৈতিক প্রতিপক্ষদের দমনে। পিরোজপুর জেলাধীন জিয়ানগর উপজেলা থেকে জিয়ানগর নামটি বাদ দেওয়া আমাদের গৌরবোজ্জল মুক্তিযুদ্ধ ও সকল মুক্তিযোদ্ধাদেরকেই অপমান করা।

তিনি আরও বলেন, শুধুমাত্র সাবেক রাষ্ট্রপতি শহীদ জিয়াউর রহমানের নাম থাকার কারণেই এটি সরকারি আক্রমণের শিকার হলো।

একই সাথে তিনি বিএনপি’র পক্ষ থেকে সরকারের সিদ্ধান্তের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ এবং অবিলম্বে জিয়ানগর নাম বদলের সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের জন্য আহ্বান জানান।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের বক্তব্যের সমালোচনা করে বিএনপির এই নেতা বলেন, রাজধানীতে সমাবেশ করতে দেওয়ার ক্ষমতা ডিএমপি’র। আওয়ামী লীগ নেতারা কী জনগণকে কাঁচকলার রাজনীতি শেখাচ্ছেন ? জনগণ মনে হয় কিছুই বোঝেন না? ডিএমপি’র কাজ হচ্ছে অপরাধ দমন, গণতন্ত্রে বিরোধী দলের অধিকার দমন নয়। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের বক্তব্য যদি সঠিক হয় তাহলে বুঝতে হবে গণতন্ত্রের পায়ে পুলিশ বেড়ি দিয়ে রেখেছে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি আরও বলেন, আওয়ামী লীগ যেভাবে দ্বিচারী আচরণ করছে, ক্রসফায়ার, বিচারবির্হভুত হত্যা, গুম, খুনের পথ বেছে নিয়েছে সেক্ষেত্রে বিএনপি একটি গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক দল হিসেবে মোকাবেলা করতে কিছু সময় লাগতে পারে।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন, বিএনপি নেতা আব্দুস সালাম, রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, আব্দুস সালাম আজাদ প্রমুখ।

১০ জানুয়ারি, ২০১৭ ১৫:২৯:২৩