'সরকার ভয়ে বিএনপিকে জনসভা করতে দিতে চায় না'
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম
অ+ অ-প্রিন্ট
বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, সরকার জনগণকে ভয় পায় বলেই বিএনপিকে জনসভা-মিছিল করতে দিতে চায় না। জনগণের উত্তাল যে তরঙ্গ-রোষ সেটা তারা দেখেছে বলে ভয় পায়। সমাবেশ নিয়ে শুক্রবার বিকেলে ঢাকা মহানগর বিএনপির এক প্রস্তুতি সভায় এ কথা বলেন তিনি। সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ করার অনুমতি দিতে অসুবিধা থাকলে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশের বিকল্প প্রস্তাব দেন মির্জা ফখরুল।

তিনি বলেন, আমরা সোহরাওয়ার্দী উদ্যান চেয়েছি। আবার এটাও বলছি, যদি সেখানে দিতে অসুবিধা হয়, আমাদের পার্টি অফিসের (নয়াপল্টন) সামনে দেন, সেটাও আমরা সফল করতে পারব। আমরা দু’টি প্রস্তাবই রাখছি।

ফখরুল বলেন, আশা করছি সরকারের শুভবুদ্ধির উদয় হবে। তারা সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ করার অনুমতি দেবেন।

ঢাকা মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক মির্জা আব্বাসের সভাপতিত্বে নয়াপল্টনে মহানগর বিএনপি কার্যালয়ের মওলানা ভাসানী মিলনায়তনে এই প্রস্তুতি সভা হয়। মহানগর নেতা ইউনুস মৃধার সঞ্চালনায় সভায় উপদেষ্টা আবদুস সালাম, আবুল খায়ের ভুঁইয়া, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, সহসাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ, মহানগর বিএনপির নেতা কাজী আবুল বাশার বক্তব্য দেন। উপস্থিত ছিলেন মহানগর নেতা আতাউর রহমান, জয়নাল আবেদিন রতন প্রমুখ।

সরকারের উদ্দেশে ফখরুল বলেন, গণতন্ত্রকে সঙ্কুচিত করবেন না, এভাবে দরজা-জানালা বন্ধ করে দেবেন না। এটা কোনোদিন ভালো ফল বয়ে আনেনি। গণতন্ত্রকে মুক্ত বাতাসে চলতে দিতে হবে। জানালা-দরজা খুলে দিতে হবে। হাজারো মত আসবে, পথ আসবে, সেখান থেকেই তো গণতন্ত্র বিকশিত হবে।

তিনি বলেন, এক দিকে বলবেন গণতন্ত্রের কথা, অন্য দিকে গণতন্ত্রের শেকড় কাটবেন। জনগণের সব অধিকার কেড়ে নেবেন, তাদের ভোটের অধিকারটুকু কেড়ে নিয়েছেন। কথা বলার অধিকার তো নেই।

০৬ জানুয়ারি, ২০১৭ ২১:৪৩:৫৪