সিডনিতে বড়দিন উদযাপন
কাজী সুলতানা শিমি
অ+ অ-প্রিন্ট
সিডনীর ওয়েন্টওর্থভীল রেডগাম অডিটরিয়ামে ২৫শে ডিসেম্বর সোমবার পালন হলো খৃস্টান ধর্মালম্বীদের সবচে বড়ো ধর্মীয় উৎসব বড়দিন। বাংলাদেশ খ্রীষ্টান ফেলোশীপ অব অস্ট্রেলিয়া প্রতি বছরের মতো এবারেও তার ধারাবাহিকতায় আয়োজন করে ধর্মীয় ও সাংস্কৃতিক এই উৎসব। 

বাংলাদেশ খ্রীষ্টান ফেলোশীপ অব অস্ট্রেলিয়া’র সভাপতি রোনাল্ড পাত্র তার শুভেচ্ছা বক্তব্যে বলেন, আমাদের হৃদয় ও মন একটি ভাণ্ডার। এটাকে আমরা প্রতিহিংসা, রাগ, আত্নগরিমা, লোভ দ্বারা পরিপূর্ণ করে একটি আবর্জনার ভাণ্ডার করতে পারি। আবার আমাদের হৃদয় ও মন- প্রেম, ভালোবাসা, ভ্রাতৃত্ব, সহনশীলতা ও সেবা দিয়ে পূর্ণ করে একটি রত্ন ভাণ্ডারে পরিণত করতে পারি। তিনি বলেন, যীশু খৃষ্ট আজ তার জন্ম তিথিতে আমাদের কাছ থেকে এমনি একটি রত্নভাণ্ডারে পূর্ণ হৃদয় ও মন চান। এটাই হবে এবারের বড়োদিনে খৃষ্টের জন্য আমাদের সবচেয়ে মূল্যবান উপহার। 

অনুষ্ঠান সাজানো হয়েছিল প্রথমে অতিথি আগমন ও শুভেচ্ছা বিনিময়। এরপর বড়দিনের বিশেষ প্র্রার্থনা, প্রীতিভোজ, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, সান্তার উপহার বিনিময়, রাফেল ড্র, বিকেলের আপ্যায়ন ও সমাপনী শুভেচ্ছায় শেষ হয় এই আনন্দঘন উৎসব।

বড়দিনের সার্বিক পরিচালনায় ছিলেন ডঃ রোনাল্ড পাত্র ও ডেইজী বিঠু বিশ্বাস। প্রতিবারের মতো এবারেও সংকলন প্রকাশিত হয়েছে জল’ এর সম্পাদনায় ছিলেন এডওয়ার্ড আশোক অধিকারী।

বাংলাদেশ খ্রীষ্টান ফেলোশীপ অব অস্ট্রেলিয়া’র কার্যকারী পরিষদে রয়েছেন- সভাপতি ডঃ রোনাল্ড পাত্র, সহ সভাপতি এ্যলেক্স তুহিন গাহিন, সাধারন সম্পাদক ডেইজী বিঠু বিশ্বাস ও প্রকাশনা ও প্রচার সম্পাদক এডওয়ার্ড আশোক অধিকারী সহ আরো অনেকে। অনুষ্ঠানের মঞ্চসজ্জায় ছিলেন, লরেন্স ব্যরেল, কবিতা রোজারিও ও জুলিয়েট রয়। হল ব্যবস্থাপনা ও পরিসজ্জায় ছিলেন, জন তাপস কর্মকার চার্লস ইলিয়াস সরেন, লরেন্স সরকার সহ অন্যান্য অনেকে। উল্লেখ্য বাংলাদেশ খ্রীষ্টান ফেলোশীপ অব অস্ট্রেলিয়া’ গত ২০ বছর যাবৎ নিয়মিতভাবে প্রতিবছর সিডনীতে বড়দিন পালন করে আসছে আনন্দমুখর ও প্রানবন্ত আমেজে।     

 

 

২৬ ডিসেম্বর, ২০১৭ ১০:৫০:৪৪