মিশরে পুরনো সমাধি থেকে উঠে এল গভীর রহস্য
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
মিশর নিয়ে রহস্য শেষ হওয়ার নয়। ২০১৮ জুড়েই সংবাদ শিরোনামে উঠে এসেছে এই দেশ। মিশরে একের পরে এক আবিষ্কৃত হয়েছে নতুন প্রত্নক্ষেত্র, যেগুলো এ দেশের প্রাচীন সভ্যতা সম্পর্কে তৈরি করেছে নতুনতর কৌতূহল।

সম্প্রতি মিশরের রাজধানী কায়রো শহরের দক্ষিণে সাক্কারা নামে এক প্রাচীন সমাধিক্ষেত্রে প্রত্নতাত্ত্বিকরা সন্ধান পেয়েছেন এক রহস্যময় সমাধির। এই সমাধি পর্যবেক্ষণ করে মিশরের সুপ্রিম কাউন্সিল অফ অ্যান্টিকুইটিজ-এর সেক্রেটারি জেনারেল মোস্তাফা ওয়াজিরি জানিয়েছেন, এই সমাধি একেবারেই অবিকৃত অবস্থায় রয়েছে। এবং তার মতে, এমন সমাধি গত কয়েক দশকে পাওয়া যায়নি।

ওয়াজিরি জানিয়েছেন, এই সমাধি মিশরের পঞ্চম রাজবংশের তৃতীয় সম্রাট নেফেরিরকারে কাকাইয়ের সমকালীন। অর্থাৎ এই সমাধি প্রায় ৪ হাজার ৪০০ বছরের পুরনো।

সম্প্রতি প্রত্নবিদরা যখন এই সমাধির ভিতরে প্রবেশ করেন, তারা দেখেন হায়ারোগ্লিফিক লিপিতে বহু কিছু লেখা রয়েছে সেখানে। সেই সঙ্গে রয়েছে বেশ কিছু মূর্তি। এবং সেই সব লিপি এ মূর্তির ঔজ্জল্য প্রায় সাড়ে চার হাজার বছরেও অমলিন।

সমাধির ভিতরে পাঁচটি কুঠুরির সন্ধান পেয়েছেন প্রত্নবিদরা। এর মধ্যে চারটি কুঠুরি সিলমোহর করে বন্ধ। আশা করা হয়েছিল, এগুলো খুললে অমূল্য কিছুর সন্ধান পাওয়া যাবে। 

গত শনিবার একটি কক্ষের সিলমোহর খুলে প্রবেশ করেন প্রত্নবিদরা। সেখানে তারা একটি শবাধার পান। এই শবাধারের রং, নকশা ও আকার আশ্চর্য রকমের টাটকা। মিশরের প্রত্নমন্ত্রী খালেদ এল-এনানি জানাচ্ছেন, এই শবাধার ও মমি সম্রাট নেফেরিরকারে কাকাইয়ের প্রধান পুরোহিতের। তার মতে, এটা ২০১৮-এর সেরা আবিষ্কার।

এই আবিষ্কার নিয়ে তুমুল হইচই শুরু হয়েছে প্রত্নতাত্ত্বিক মহলে। এখন বাকি রয়েছে ওই সমাধির লিপিগুলোর পাঠোদ্ধার। 

সূত্র: এবেলা

 

১৯ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১০:১৯:১১