বোরকা পরে স্ত্রীকে অপহরণের চেষ্টা, অতঃপর...[ভিডিও]
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট


ফিল্মি কায়দায় প্রাক্তন স্ত্রীকে অপহরণের চেষ্টা করল স্বামী। যদিও তার পরিকল্পনা সফল হতে দেয়নি গ্রামবাসীরা। হাতেনাতে ধরে গণপিটুনি দেওয়ার পর স্বামীকে তুলে দেওয়া হয় পুলিসের হাতে। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার বীরভূমে। জানা গিয়েছে, শুক্রবার স্বামী শেখ আবদুল্লা বোরখা পরে এসে তার প্রাক্তন স্ত্রীকে অপহরণ করার চেষ্টা করে।


দু’‌বছর আগে সিউড়ি থানার অন্তর্গত মাটপলসার বাসিন্দা রাজিয়া বিবির সঙ্গে বিয়ে হয় সাঁইথিয়ার আলুন্দার বাসিন্দা শেখ আবদুল্লার। কিন্তু বিয়ের পরপরই রাজিয়া জানতে পারেন তাঁর স্বামী আবদুল্লা বিভিন্ন ধরনের অসামাজিক কাজের সঙ্গে যুক্ত। যার মধ্যে নারী পাচার থেকে মাদক পাচার সবই রয়েছে।এছাড়াও যৌনপল্লীর সঙ্গেও তার ব্যবসীয়িক যোগাযোগ রয়েছে। রাজিয়া এইসব নিয়ে প্রতিবাদ করায় তাঁর ভাগ্যে জুটত শুধুই মার এবং নিজেদের ঘনিষ্ঠ মুহূর্তের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি। এরপরই রাজিয়া ঠিক করেন যে তিনি তাঁর স্বামীর সঙ্গে থাকবেন না। ছ’‌মাস আগেই রাজিয়ার সঙ্গে তাঁর স্বামীর বিবাহবিচ্ছেদ হয়ে যায়। কিন্তু শেখ আবদুল্লার যে অন্য পরিকল্পনা ছিল তা কে জানত। 

রাজিয়া সিউড়িতে পড়াশোনার জন্য আসতেন। শেখ আবদুল্লা সে খবর জানত। প্রাক্তন স্ত্রীকে তাই মাঝে মাঝেই অনুসরণ করত সে। রাজিয়াকে পাচার করার উদ্দেশ্য নিয়ে আবদুল্লা অপহরণের ছক কষে। শুক্রবারও রাজিয়া সিউড়িতে আসেন। ওইদিন আবদুল্লা একটা গাড়ি ভাড়া করে তার চালককে টাকা দিয়ে নিজের দলে করে নেয়। একটি মারুতি ভ্যান নিয়ে বোরখা পড়ে বোবা মেয়ে সেজে বাসস্ট্যান্ডে এসে দাঁড়ায় আবদুল্লা। গ্রামের দিকেই যাচ্ছে তাই বাড়ি ছেড়ে দেবে বলে গাড়ি তুলে নেয় রাজিয়াকে। গাড়ির ভিতরেই রাজিয়াকে বেধড়ক মারধর করতে থাকে৷ গ্রামের কাছাকাছি এলে গাড়ির ভিতর থেকে রাজিয়ার চিৎকার শুনে তাড়া করতে থাকে গ্রামবাসীরা। পিছু ধাওয়া করে হাতেনাতে ধরে ফেলে গাড়িটিকে। এরপরেই গাড়ি থেকে নামিয়ে বেধড়ক গণপিটুনি দেওয়া হয় আবদুল্লাকে। খবর পেয়ে পুলিস গিয়ে ক্ষিপ্ত গ্রামবাসীদের হাত থেকে উদ্ধার করে আটক করে তাকে। রাজিয়াকে সিউড়ি মহিলা থানায় নিয়ে গিয়ে অভিযোগ নেয় পুলিশ। অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিস। সূত্র: আজকাল



১৩ আগস্ট, ২০১৮ ০৫:৫১:৩৫