৩০ জন নারীকে হত্যা করে কেটে খেয়েছে রুশ দম্পতি!
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
এক নরখাদক দম্পতির সন্ধান মিলেছে রাশিয়ায়। জানা গেছে, এই দম্পতি কমপক্ষে ৩০ জন নারীকে হত্যা করে কেটে খেয়েছে। তবে নির্মম এই ঘটনার জন্য তাদের মধ্যে কোনও ধরনের অনুতাপ বা অনুশোচনা পাওয়া যায়নি।

অভিযুক্ত দম্পতি নাতালিয়া বাকসশিভা ও তার স্বামী দিমিত্রিকে নরখাদক হিসেবে চিহ্নিত করেছে রাশিয়ার মেডিকেল টিম। ২০১৭ সালের অক্টোবর মাসে নরহত্যার দায়ে গ্রেফতার করা হয় এই দম্পতিকে।

গ্রেফতারের পর এই দম্পতির মধ্যে অস্বাভাবিক আচরণ ধরা পড়ে তদন্তকারীদের নজরে। এরপর তাদেরকে ‘‌মানসিক বিকারগ্রস্ত নরখাদক’‌ হিসেবে চিহ্নিত করে গঠিত তদন্তকারী দলে থাকা মনোবিদরা।

বাকসশিভা দম্পতি কমপক্ষে ৩০ জন নারীকে হত্যা করে খেয়ে ফেললেও প্রথমে পুলিশের সন্দেহের নজরে আসেনি। এরপর এলিনা ভারুশিভা নামে এক তরুণী নিখোঁজ হওয়ার পরে তদন্ত শুরু করে পুলিশ। হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটনে উঠেপড়ে লাগে তদন্তকারী পুলিশের দল।

অবশেষে নাতালিয়াদের বাড়ির পিছনে একটি আবর্জনার স্তূপ থেকে এলিনার মোবাইল ফোনটি খুঁজে পান একদল নির্মাণ কর্মী। তারা সেখানে একটি বাড়ি নির্মাণের কাজ করছিলেন।

মোবাইল ফোনটি পুলিশের কাছে জমা দিলে হত্যাকারী হিসেবে অভিযোগের তীর ছুটে যায় নাতালিয়াদের ওপরে। শেষ রক্ষা হয়নি নাতালিয়া ও দিমিত্রির। পুলিশের জালে আটকা পড়ে নরখাদক এই দম্পতি।

১১ আগস্ট, ২০১৮ ০৯:১৯:৪৮