মেয়েকে ১৫ বছর ঘরে আটকে রেখেছিলেন বাবা-মা, কী পরিণতি হল যুবতীর
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
প্রতীকী ছবি | ফাইল চিত্র
মেয়ে মানসিক ভারম্যহীন। তাই তাঁকে ঘরেই আটকে রাখতেন বাবা-মা। গত ১৫ বছর বাড়ির বাইরে বেরতে দেননি। আর তা-ই কাল হয়ে দাঁড়াল। ঠান্ডায় জমে শেষমেশ মৃত্যু হয়েছে ওই যুবতীর। ঘটনাটি ঘটেছে, জাপানের টোকিও শহরে। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, যুবতীর নাম আইরি। তাঁর বাবা ইয়াসাতুকা কাকিমোতো এবং মা ইউকারিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পরিবারের দাবি, আইরি মানসিকভাবে অসুস্থ ছিলেন। হিংস্র আচরণ করতেন। 

সে কারণেই ১৫-১৬ বছর বয়স থেকে তাঁকে ঘরে আটকে রাখতেন বাবা-মা। দিনে মাত্র ১ বার খাবার পেতেন আইরি। ঘরের ইন্টারকমের সাহায্যে বাড়ির বাকিদের সঙ্গে কথা বলতেন তিনি। ঘরে মোট ১০টি সিসিটিভি ক্যামেরা লাগানো রয়েছে।

বছরের পর বছর বাইরের আলো-হাওয়া থেকে দূরে থাকার ফলে অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন আইরি। বিভিন্ন রোগ ও অপুষ্টির কারণে তাঁর ওজন কমে ১৯ কেজি হয়ে গিয়েছিল। শেষমেশ অতিরিক্ত ঠান্ডা লেগে জাপানের ‘দ্য ম্যাডওম্যান ইন দ্য অ্যাটিক’-এর মৃত্যু হয়।

আইরির মৃত্যু হওয়ার পর প্রথমে বেআইনিভাবে দেহ লোপাটের চেষ্টার অভিযোগে তাঁর বাবা-মাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরে তদন্তে জানা যায়, ইচ্ছের বিরুদ্ধেই ওই ঘরে আটকে রাখা হত আইরিকে। তাই আইরির বাবা-মা-এর বিরুদ্ধে আরও জোরদার মামলা করার পরিকল্পনা করেছে টোকিও পুলিশ।

০৬ জানুয়ারি, ২০১৮ ২৩:০৫:০৪