ফেসবুক দিয়ে এলেন প্রেমিক, জানালা দিয়ে পালালেন স্ত্রী!
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট


ছোট্ট, সুখী সংসার। চার-বছরের ছেলেকে নিয়ে সুখেই দিন কাটছিল স্বামী-স্ত্রীর। কিন্তু বাধ সাধল ফেসবুক। বলা ভালো, ফেসবুকের সাহায্যে ঘরে ঢুকে জানালা দিয়ে গৃহবধূকে নিয়ে পালিয়ে গেল প্রেমিক!

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার হিলি থানা অঞ্চলের ধলপাড়া গ্রামে। প্রেমিকের সঙ্গে স্ত্রী পালানোয় থানায় লিখিত অভিযোগও দায়ের করেছেন গৃহবধূর স্বামী।

ওই গৃহবধূর স্বামীর অভিযোগ, ফেসবুকের মাধ্যমে শ্বশুরবাড়ির পাশের এলাকার এক যুবকের সঙ্গে প্রথম আলাপ হয় তার স্ত্রীর। আলাপ থেকে গভীর প্রেম। সেই প্রেমের টানেই স্বামী, পুত্র সন্তানকে ফেলে প্রেমিকের সঙ্গে পালিয়ে গিয়েছেন তার স্ত্রী।

সবার নজর এড়িয়ে পালাতে সদর দরজা ব্যবহার না করে, বাড়ির পিছনের দিকের জানালা দিয়ে লাফ মেরে বাইরে বেরিয়ে প্রেমিকের সাইকেলে চেপে পালায় ওই গৃহবধূ। গোটা ঘটনাটি জানিয়ে ওই গৃহবধূর স্বামী, মঙ্গলবার হিলি থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। পুলিশও ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, কিসমতদাপট এলাকার বাসিন্দা পেশায় ব্যবসায়ী এক যুবকের সঙ্গে এলাকারই বাসিন্দা ওই গৃহবধূর বছর ছয়েক আগে বিয়ে হয়। বর্তমানে তাদের একটি ৪ বছরের এক ছেলে সন্তানও রয়েছে। ছোট্ট সংসারে কিছুদিন আগে পর্যন্তও সেই অর্থে কোনও সমস্যা ছিল না।  

বিপত্তির সূত্রপাত স্মার্টফোনের সূত্র ধরে। বউয়ের আবদার মেনে বছর দুয়েক আগে তাকে একটি স্মার্টফোন কিনে দিয়েছিলেন ওই ব্যক্তি। ফেসবুকে অ্যাকাউন্ট তৈরি করে বন্ধুদের সঙ্গে পরিচয়ও করিয়ে দিয়েছিলেন নিজেই।  

ফেসবুকেই পাশের তিওর এলাকার এক যুবকের সঙ্গে ওই গৃহবধূর পরিচয় হয়। পরিচয় থেকে অল্প কয়েকদিনের গভীর প্রেম হয় দুজনের মধ্যে। বছর খানেক আগে ওই নারী তার প্রেমিকের সঙ্গে পালানোর চেষ্টা করার পথে ধরা পড়ে যান। গ্রামে সালিশি সভা বসিয়ে বিষয়টি মিটমাট করা হয়। স্বামীও কিছুটা নিশ্চিন্ত হয়েছিলেন।  

প্রেমিকের সঙ্গে গৃহবধূর সম্পর্কে অবশ্য চিড় ধরেনি। প্রেমিকের সঙ্গে পালিয়ে যেতে এবারে ওই নারী নতুন ছক সাজান। সোমবার সন্ধ্যার পরে প্রেমিক বাড়ির পিছনে এসে অপেক্ষা করছিলেন। বাড়ির পিছনের দিকের একটি জানালার গ্রিল ছিল না। সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে ওই জানালা দিয়ে লাফ দিয়ে বের হয়ে প্রেমিকের সাইকেলে করে পালান তিনি।

কিন্তু এত আটঘাঁট বাধার পরেও এক প্রতিবেশীর চোখে পড়ে যান তারা। ওই প্রতিবেশীর থেকেই গৃহবধূর স্বামী ঘটনার কথা জানতে পেরে হিলি থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করলেও শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ওই গৃহবধূ বা তার প্রেমিকের কোনও হদিস পাওয়া যায়নি।  সূত্র: এবেলা



 


০৪ অক্টোবর, ২০১৭ ২০:৪৪:০৭