সংকট সত্যিকারের বিরোধী দলের
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট


একাদশ জাতীয় সংসদের প্রথম অধিবেশনের দিনে বিশ্লেষকরা আবার বললেন, সংসদকে কার্যকর করতে ‘সত্যিকারের' বিরোধী দল দরকার, কেননা, সরকারকে পথে রাখতে কার্যকর বিরোধী দলের বিকল্প নেই৷ বুধবার বিকেল ৩টায় সংসদের প্রথম অধিবেশন শুরু হয়  ফজলে মো. রাব্বি মিয়ার সভাপতিত্বে৷ সবাইকে স্বাগত জানানোর পর স্পিকার নির্বাচন করা হয়৷ ড. শিরিন শারমিন চৌধুরী টানা তৃতীয়বারের মত স্পিকার নির্বাচিত হন৷ সংসদ অধিবেশন কিছুক্ষণের জন্য মুলতুবি করে রাষ্ট্রপতি তাঁকে শপথ পড়ান৷ এরপর স্পিকার ড. শিরিন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে শুরু হয় সংসদের অধিবেশন৷ এ পর্যায়ে ফজলে মো. রাব্বি মিয়াকে ডেপুটি স্পিকার নির্বাচিত করা হয়৷ তিনি দশম সংসদেও ডেপুটি স্পিকার ছিলেন৷ সংসদ অধিবেশন শুরু হওয়ার আগেই সংসদ নেতা, বিরোধী দলীয় নেতা, চিফ হুইপ এবং হুইপদের নির্বাচন চূড়ান্ত হয় সংসদীয় দলের সভায়৷

সংসদ অধিবেশনের শুরুতেই সংসদ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বিরোধী দলীয় উপনেতা জি এম কাদেরসহ সরকারি ও বিরোধী দলের বেশিরভাগ সংসদ সদস্য উপস্থিত ছিলেন৷ অসুস্থতার কারণে বিরোধী দলীয় নেতা এইচ এম এরশাদ প্রথম অধিবেশনে ছিলেন না৷ দশম সংসদের মতো এবারো সংসদে বিরোধী দল হিসেবে আছে জাতীয় পার্টি৷ আগের সংসদে তারা বিরোধী দল থাকলেও একই সঙ্গে সরকারেও ছিল৷ কিন্তু এবার তারা সরকারে নেই৷

কিন্তু বিশ্লেষকরা  সন্দিহান যে, জাতীয়পার্টি এবারের সংসদে  সত্যিকার অর্থে কতটা বিরোধী দল হয়ে উঠতে পারবে৷ দশম সংসদের সময় অনেকেই তাদের ‘গৃহপালিত' বিরোধী দল বলতেন৷ এবারের সংসদে কি তারা সত্যিকার বিরোধী দল হতে পারবে? বিরোধী দল সংসদে গঠনমূলক সমালোচনা করে সরকারকে সঠিক পথে রাখে৷ সরকারকে জবাবদিহিতার মুখে ফেলে৷ এবার কি সেটা সম্ভব হবে?

আইনের তরুণ শিক্ষার্থী এস এম শাহারুল ইসলাম ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘আমি চাই, সংসদে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হোক৷ কোনো একটি একক দল চাইলো আর সংখ্যাগরিষ্ঠতার জোরে তা পাশ হয়ে গেল – এমন অবস্থা আমি চাই না৷ যৌক্তিক বিষয়গুলো যেন সবাই মেনে নেয়৷''

তিনি বলেন, ‘‘আর এজন্য প্রয়োজন সরকারের গঠনমুলক সমালোচনা, যৌক্তিক বিরোধিতা৷ জাতীয় পার্টি বিরোধী দলে বসলেও তারা তো এই সরকারের সঙ্গে মহাজাটের হয়েই নির্বাচন করেছে৷ তারা বিরোধী দল হলেও সরকারের জোটেই আছে৷ আমার মনে হয়েছে বিরোধী দল হতে হবে একই দল বা জোটের বাইরে থেকে, আরেকটি দল বা জোট থেকে৷ তাহলে সত্যিকারের বিরোধী দল হবে৷''

সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন)-এর সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘আমার মনে হচ্ছে এবারের সংসদেও বিরোধী দল সোনার পাথর বাটি হবে৷ তারপরও আমাদের অপেক্ষা করতে হবে এই বিরোধী দল সত্যিকারের বিরোধী দল, না পাতানো বিরোধী দল হবে৷ এরা বিরোধী দল হিসেবে বিরোধিতা করবে না, সরকারের মহাজোটের অংশ হিসেবে বিরোধিতা করবে৷ তারা সংসদীয় কমিটিগুলোকে কতটা কার্যকর করতে পারে সেটা দেখার বিষয়৷''

তিনি বলেন, ‘‘আমি চাই সংসদীয় প্রিভিলেজ কমিটি, যেখানে সংসদ সদস্যদের আচার-আচরণ শেখানো হয়, সেটা যেন স্ট্রং করা হয়৷ সংসদের জন্য অবমাননাকর হয় এমন কিছু যাতে সংসদ সদস্যরা না করেন, সেজন্য এই কমিটিকে কার্যকর ভূমিকা নিতে হবে৷''

তিনি আরেক প্রশ্নের জবাবে বলেন, ‘‘আমি চাই একটা কার্যকর সংসদ হোক, যেখানে সরকারকে জবাবদিহিতার আওতায় আনা যায়৷ সংসদ যেন নির্বাহী বিভাগের আজ্ঞাবহ না হয়৷''

আর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক শেখ হাফিজুর রহমান কার্জন ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘সংসদীয় পদ্ধতির সরকারব্যবস্থায় সংসদই হওয়া উচিত সরকারের সব ধরনের কাজের কেন্দ্র৷ আর সে কারণে সংসদ জনপ্রতিনিধিত্বশীল হওয়া উচিত৷ যখন আমরা দেখি সংসদে শতকরা ৬০ ভাগ ব্যবসায়ী, তখন কিন্তু একটা আশঙ্কা থাকে যে, রাজনীতিটা রাজনীতিবিদদের হাত থেকে ব্যবসায়ীদের হাতে চলে গেল৷ আর সেই সংসদ জনগণের স্বার্থ কতটা রক্ষা করতে পারবে?''

তিনি সংসদে বিরোধী দলের প্রশ্নে বলেন, ‘‘এখন যেরকম বিরোধী দল, সেটা যে ঠিকমতো কাজ করে না তা আমরা দশম সংসদেও দেখেছি৷ এবার জাতীয়পার্টি সরকারে না থাকলেও মহাজোটে তো আছে৷''

জাতীয় সংসদে নতুন ডেপুটি স্পিকারকে ধন্যবাদ জানাতে গিয়ে বিরোধী দলীয় উপনেতা জিএম কাদের বলেছেন, ‘‘সংসদ প্রাণবন্ত ও কার্যকর হোক, আমরা সেটাই চাই৷ বিরোধী দল হিসেবে আমরা সংখ্যায় কম হলেও সংসদকে কার্যকর রাখতে কোনো বাধা হবে না বলে আমরা মনে করি৷ আমরা সঠিকভাবে জনগণের কথা তুলে ধরতে পারলে সংসদ প্রাণবন্ত হবে৷ তবে জনগণের পক্ষে কথা বলতে আমাদের প্রত্যাশা অনুযায়ী সময় দিতে হবে৷''

আর সংসদনেতা ও প্রধানমন্ত্রী নতুন স্পিকারকে ধন্যবাদ দিতে গিয়ে বলেন,‘‘বিরোধী দলকে আশ্বাস দিতে পারিম আপনারা যথাযথভাবে সরকারের সমালোচনা করতে পারবেন৷ এখানে আমরা কোনো বাধা সৃষ্টি করবো না৷ অতীতেও কোনো দিন আমরা বাধা দেইনি৷''

স্পিকারকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, ‘‘সংসদ নেতা হিসেবে আমার দায়িত্ব হচ্ছে সব সদস্যের অধিকার দেখা, সেইসঙ্গে স্পিকার হিসেবে সরকারি দল ও বিরোধী দলসহ সব সদস্য যাতে সমান সুযোগ পায়, অবশ্যই আপনি সেটা দেখবেন৷ এ ব্যাপারে আপনাকে আমরা সব রকম সহযোগিতা করবো– সেই আশ্বাস আমি দিচ্ছি৷''

বিএনপি'র মানববন্ধন

সংসদ অধিবেশন শুরুর দিন বুধবার সকালে ‘ভুয়া ভোটের সংসদ'-এর প্রতিবাদে বিএনপি  মানববন্ধন করে ঢাকার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে৷ মানববন্ধন চলাকালে  বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘‘সংসদ বাতিল করে নতুন নির্বাচনের মধ্য দিয়ে নতুন সরকার গঠনের আহ্বান জানাচ্ছি৷ আসুন আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধ হয়ে আমাদের অধিকার আদায় করি৷''

তিনি আরো বলেন, ‘‘আজকে একটি সংসদ বসতে চলেছে, যে সংসদ জনগণের কোনো প্রতিনিধিত্ব করে না৷ ৩০ ডিসেম্বর যে নির্বাচন হয়েছে, তা ভোট ডাকাতির ভুয়া নির্বাচন৷ শুধু নির্বাচন কমিশন ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী দিয়ে সম্পন্ন ভোট ডাকাতির নির্বাচনে জনগণের ভোটাধিকার হরণ করে আওয়ামী লীগ পার্লামেন্ট দখলদারি সরকার বসিয়েছে৷''

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘‘২৯ তারিখ রাতে প্রশাসন, আওয়ামী বাহিনী ভোট ডাকাতি করেছে৷ দেশের জনগণ ভোটাধিকার থেকে বঞ্চিত হয়েছে৷ ৩০ তারিখ কোনো নির্বাচন হয়নি৷ এটি তথাকথিত সংসদ৷ একটি নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবি জানাচ্ছি৷'' -ডয়চে ভেলে









 


৩১ জানুয়ারি, ২০১৯ ১৫:৪৫:৪৫