নতুন প্রজন্মের মহায়নায়ক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
১৯৭৫ সালের ১৫ অগাস্ট সপরিবারে হত্যা করা হয় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে৷ তারপর ইতিহাস থেকে তাঁর নাম মুছে দেয়ার অপচেষ্টা চলে দীর্ঘদিন৷ কিন্তু ইতিহাস চলে তার নিজস্ব পথে৷ নতুন প্রজন্মের কাছে তাই তিনি  মহানায়ক৷

ঢাকা সিটি কলেজের উচ্চ মাধ্যমিকের ছাত্র রায়হান শাহরিয়ার সাবিত৷ তার কাছে সবচেয়ে আকর্ষণীয় স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ৷ যাঁরা সরসরি ১৯৭১ সালের ৭ মার্চের সেই ভাষণ শুনেছেন রেসকোর্স ময়দানে ( বর্তমানে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান), তাঁদের কেমন অনুভূতি হয়েছিল সাবিত হয়তো তা পুরোপুরি অনুভব বরতে পারছেন না, কিন্তু সে যখনই শোনেন তখনই এক ভিন্ন অনুভূতি হয়৷ বার বার শোনেন৷

সাবিত এ প্রসঙ্গে ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘৭ মার্চের ভাষণ পুরো জাতিকে উজ্জীবীত করেছে৷ স্বাধীনতার জন্য ঐক্যবদ্ধ করেছে৷ আর এই ভাষণ আমার কাছে এখেনো সমান গুরুত্বপূর্ণ৷ এই ভাষণ শুনলে  আমি স্থির থাকতে পারি না, আমি উজ্জ্বীবিত হই৷''

সাবিত মনে করেন, ‘‘তিনি (বঙ্গবন্ধু) আমাদের মহান নেতা৷ আমাদের স্বাধীনতা দিয়েছেন৷ স্বাধীনতার জন্য উজ্জ্বীবিত করেছেন৷ তার গুরুত্ব আমাদের কাছে সবচেয়ে বেশি৷''

সাবিত জানান, ‘‘আমরা বইয়ে, আলোচনায় এখন বঙ্গবন্ধুর কথা জানতে পারি৷ শিক্ষকদের কাছে জানতে পারি৷ বড়দের কাছে জানতে পারি৷ আর  ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরে গিয়েও তাঁকে জানা যায়৷''

দেশের বিভিন্ন এলাকার শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলে এটা স্পষ্ট হয় যে, এই প্রজন্ম বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে এখন বেশ স্বচ্ছ ধারণা রাখে৷ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এবং পাঠ্যপুস্তকে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ এবং বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে জানার ব্যবস্থা রয়েছে৷ পাঠ্য বইয়ে আলাদা অধ্যায় রয়েছে৷ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষকরা এ নিয়ে শিক্ষার্থীদের জন্য আলাদা সেশনের আয়োজন করেন৷

বাংলাদেশের দক্ষিণের জেলা পিরোজপুরের একটি উপজেলা মঠবাড়িয়৷ মঠবাড়িয়া সদরে কে এম লতিফ ইন্সটিটিউশন৷ সেখানকার দশম শ্রেণির ছাত্রী জান্নাত বিনতে জাহান৷ তিনি ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আমাদের বঙালি জাতির পিতা৷ তাঁর সবচেয়ে বড় গুণ তিনি আদর্শের বাস্তবায়ন ঘটাতে বাঙালি জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করেছেন৷ তাঁর মধ্যে নেতৃত্ব দেয়ার বিরল গুণাবলী ছিল৷ তিনি  সবাইকে ঐক্যবদ্ধ করেছেন৷ এক স্বপ্ন বাস্তবায়নে সবাইকে মুক্তি সংগ্রামী বানিয়েছেন৷''

জান্নাত বিনতে জাহানের ভাষায়, ‘‘বঙ্গবন্ধুর দেশপ্রেম আমাদের জন্য অনুসরণীয়৷ এটা অনুসরণ করতে পারলে বিশ্বে আমরা মাথা উঁচু করে দাড়াতে পারব৷''

আরেক ছাত্র হাসিবুল্লাহ খান বলেন, ‘‘একজন ছাত্র হিসেবে বঙ্গবন্ধু আমার কাছে একজন আদর্শ মানুষ৷ তাঁর ব্যক্তিত্ব, আদর্শ, গুণাবলী আমার কাছে অনুসরণীয়৷ মানুষকে  একতাবদ্ধ করার অসাধারণ গুনাবলী তাঁর মধ্যে ছিল৷ আমি যদি তাঁকে অনুসরণ করি, তাহলে এই গুণাবলী আমার মধ্যেও নিয়ে আসতে পারব৷''

আরেক প্রশ্নের জবাবে হাসিবুল্লাহ বলেন, ‘‘বঙ্গবন্ধুর ওপর আমি কবিতা পড়েছি৷ পঞ্চম শ্রেণির বইয়ে তাঁর ওপর লেখা পড়েছি৷ স্কুলের লাইব্রেরিতে অনেক বই আছে বঙ্গবন্ধুর ওপর৷ আমি তা পড়েছি৷ আর আমাদের শিক্ষকরা ক্লাসেও বঙ্গবন্ধু এবং মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে আলোচনা করেন৷'' স্কুলের এ শিক্ষার্থী আরো বলেন, ‘‘আমি মনে করি, প্রত্যেক শ্রেণির পাঠ্য বইতেই বঙ্গবন্ধুর ওপর লেখা থাকা দরকার৷''

এই প্রজন্মের খুব বড় একটা অংশের কাছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান একজন দেশ্রপ্রেমিক, আত্মত্যাগী মানুষ৷তাঁরা জেনেছেন, বঙ্গবন্ধু দেশের মানুষের জন্য কাজ করেছেন, সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্ন দেখেছেন৷ তাঁর আদর্শ, ব্যক্তিত্ব অনুসরণীয়৷

নবম শ্রেণির ছাত্রী হুমায়রা ইয়াসমীন জানান, ‘‘আমাদের স্কুলে বঙ্গন্ধুর ওপর অনেক অনুষ্ঠান হয়৷ অনেক প্রতিযোগিতা হয়৷ আর পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধুর জীবনের ওপর বই পুরস্কার দেয়া হয়৷ এটা আমাদের বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে জানতে সহায়তা করে৷''

হুমায়রা বলেন, ‘‘বঙ্গবন্ধু ছিলেন আপোষহীন এবং আত্মত্যাগে উদ্বুদ্ধ একজন মানুষ৷ তাঁর চরিত্রের এই দিকটি আমাকে অনেক বেশি আকর্ষণ করে৷''

আফিয়া ইন্তাজ যুথী৷ রংপুর ইন্টারন্যাশনাল গ্রামার স্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্রী৷ তার ভাষায়, ‘‘বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ এবং স্বাধীনতা সম্পর্কে জানতে গিয়ে বঙ্গবন্ধুকে জানতে পারি৷ তিনি আমাদের জাতির পিতা৷ আমাদের স্বাধীনতার স্থপতি৷ স্বাধীনতার কথা জানতে গিয়ে যে নামটি বার বার আসে, তা হলো বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান৷ তিনি আমাদের স্বাধীনতা, মুক্তিযুদ্ধ, হতিহাস সবকিছুর সঙ্গেই ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে আছেন৷''

বঙ্গবন্ধুর দেশপ্রেমও মুগ্ধ করে তাকে, ‘‘বঙ্গবন্ধু দেশকে ভালোবেসিছিলেন৷ দেশের মানুষকে ভালোবেসেছিলেন৷ তিনি সোনার বাংলার স্বপ্ন দেখেছেন৷ আমরা যদি দেশকে ভালোবেসে দেশের জন্য কাজ করি, তাহলেই বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়ন হবে৷'' -ডডয়েচেভেলে

 

১৫ আগস্ট, ২০১৮ ০০:১৮:৩৪