বেরাইদে ‘৭১ এর যুদ্ধশিশুর লেখককে সংবর্ধনা
অ+ অ-প্রিন্ট
‘৭১-এর যুদ্ধশিশু’ গ্রন্থের লেখক কানাডা প্রবাসী মুস্তফা চৌধুরীকে সংবর্ধনা দিয়েছে বাংলাদেশ গ্রন্থসুহৃদ সমিতি। শুক্রবার রাজধানীর বাড্ডার বেরাইদ গণপাঠাগারে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি গ্রন্থসুহৃদ এমদাদ হোসেন ভূঁইয়া। প্রধান অতিথি ছিলেন সাবেক তথ্যমন্ত্রী, বিশিষ্ট রাষ্ট্রবিজ্ঞানী এবং গ্রন্থটির প্রকাশনা সংস্থা একাডেমিক প্রেস অ্যান্ড পাবলিশার্স লাইব্রেরির চেয়ারম্যন ড. মিজানুর রহমান শেলী। বিশেষ অতিথি ছিলেন বিশিষ্ট শিশু সাহিত্যিক ও দৈনিক যুগান্তরের ফিচার সম্পাদক রফিকুল হক দাদুভাই এবং মিউচুয়াল ট্রাষ্ট ব্যাংকের ভাইস-চেয়ারম্যান ও এফবি ফুটওয়্যার লিমিটেডের ম্যানেজিং ডিরেক্টর মো: হেদায়েতুল্লাহ (রন)।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ড. মিজানুর রহমান শেলী বলেন, মুক্তিযুদ্ধের অবিদিত ইতিহাস জানতে হলে সবাইকে অবশ্যই মুস্তফা চৌধুরীর ‘৭১-এর যুদ্ধশিশু’ বইটি পড়তে হবে। এই বই বাদ দিয়ে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস অসম্পূর্ণ। অথচ দীর্ঘদিন এই ইস্যুটি সবার চোখের আড়ালে থেকে গিয়েছিল। লেখক বিষয়টিকে নিয়ে যে শ্রম ও নিষ্ঠার পরিচয় দিয়েছেন সেজন্য জাতি তার কাছে কৃতজ্ঞ। বিশেষ অতিথি রফিকুল হক দাদুভাই সবাইকে বইটি পড়ার এবং সংগ্রহে রাখার পরামর্শ দেন। বিশেষ অতিথি নবীন শিল্পপতি মো: হেদায়েতুল্লাহ (রন) বলেন, বইটি মুক্তিযুদ্ধে আমাদের মা-বোনদের অসামান্য ত্যাগের কথা স্মরণ করিয়ে দেয়। আমরা বীরাঙ্গনাদের কাছে বিশেষভাবে ঋনী। অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে সংগঠন দুটির পক্ষ থেকে চার গুনীকে ‘গ্রন্থসুহৃদ’ সম্মাননা পদকে ভূষিত করা হয়। তারা হলেন- মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক গবেষণায় লেখক মুস্তফা চৌধুরী, সৃজনশীল প্রকাশনা শিল্পে ড. মিজানুর রহমান শেলী, শিশু সাহিত্যে রফিকুল হক দাদুভাই এবং গ্রন্থাগার আন্দোলনে জাতীয় গ্রন্থকেন্দ্রের পরিচালক মো: নজরুল ইসলাম। নজরুল ইসলাম অনুষ্ঠানে উপস্থিত হতে পারেননি। অন্য তিনজনের হাতে পদক তুলে দেন হেদায়েতুল্লাহ (রন)।বেরাইদে ‘৭১ এর যুদ্ধশিশুর লেখককে সংবর্ধনা

 

১৯ জানুয়ারি, ২০১৮ ১৪:৫৬:২৭