রূপকল্পের 'রেইনবো নেশন': বিএনপিকে কোন পথে নিচ্ছেন খালেদা জিয়া
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া
বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া আগামি ২০৩০ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশের জন্য যে ভবিষ্যত পরিকল্পনা তুলে ধরেছেন, তাতে সবাইকে নিয়ে এক 'রেইনবো নেশন' বা রঙধনু জাতি গড়ার কথা বলেছেন। বুধবার ঢাকায় এক হোটেলে খালেদা জিয়া তাঁর দলের তরফ থেকে 'ভিশন ২০৩০' নামের এই পরিকল্পনা তুলে ধরেন। তিনি বলেন, বিএনপি বাংলাদেশি জাতীয়তাবাদের ভিত্তিতে রাজনৈতিক ও সামাজিক বিভাজনের অবসান ঘটাতে চায়।

"আমরা চাই সকল মত ও পথকে নিয়ে এমন একটি রাজনৈতিক সংস্কৃতি লালন ও পরিপুষ্ট করতে যে সংস্কৃতি বাংলাদেশকে একটি রেইনবো নেশনে (রঙধনু জাতিতে) পরিণত করবে।"

বিএনপি নেত্রী যে রেইনবো নেশন বা 'রঙধনু জাতির' কথা বলছেন, তার রাজনৈতিক-সাংস্কৃতিক চরিত্র কি হবে?

এ প্রশ্নের উত্তরে এই রূপকল্প প্রণয়নের সঙ্গে জড়িত অধ্যাপক মাহবুবউল্লাহ বলেন, "এটা হবে একটা অসাম্প্রদায়িক ও ইনক্লুসিভ সোসাইটি। অর্থাৎ সবাইকে নিয়েই এই সমাজ এগিয়ে চলবে। সেখানে সবচেয়ে ক্ষুদ্রতম জাতিসত্ত্বা, যাদের সংখ্যা হয়তো মাত্র দুশো কি তিনশো, তাদেরও একটা স্থান থাকবে।"

"এটা হবে একটা মানবিক সমাজ, সবার অংশগ্রহণমূলক একটা সমাজ।"

এই রূপকল্পে বাংলাদেশের রাজনীতি, সমাজ, সংস্কৃতি নিয়ে বিএনপির ভেতরে ভিন্ন কোনো চিন্তাধারার কোনো ইঙ্গিত কি খালেদা জিয়া দিয়েছেন?

রাজনৈতিক বিশ্লেষক অধ্যাপক দিলারা চৌধুরি বলেন, খালেদা জিয়ার বক্তৃতা শুনে তাঁর মনে হয়েছে বিএনপি যে উদার গণতান্ত্রিক রাজনীতির পক্ষে, সেটাই তিনি তুলে ধরতে চেয়েছেন।

তার মানে কি বিএনপি ইসলামপন্থী রাজনীতির সঙ্গে তাদের যে মাখামাখি, সেখান থেকে কি সরে আসতে চাইছে?

দিলারা চৌধুরি বলেন, "বাংলাদেশ যদিও মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশ, ইনক্লুসিভ সমাজ গড়তে হলে সবাইকে নিয়েই গড়তে হবে। আমার মনে হচ্ছে খালেদা জিয়া এখানে নতুন কিছু বলছেন। তিনি বিএনপির একটি নতুন ইমেজ গড়তে চাইছেন।"

যে নতুন পথে বিএনপিতে খালেদা জিয়া নিতে চান, সেক্ষেত্রে তিনি কি কোন ঝুঁকি নিচ্ছেন?

দিলারা চৌধুরি বলেন, "আমার মনে হয় না, এটা একটা ঝুঁকি। কারণ বাংলাদেশে যদিও বিরাট বিভাজন রয়েছে রাজনীতিতে, এবং যদিও এটি বেশ গভীর, সাধারণ মানুষ কিন্তু শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য এই বিভাজন দূর করতে চায়।"

কিন্তু খালেদা জিয়া যে রাজনীতির কথা বলছেন, বিএনপি কি আসলেই সেরকম একটা রাজনীতি বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করতে চায়?

এ প্রশ্নের উত্তরে দিলারা চৌধুরি বলেন, "বিএনপি আসলেই এরকম রাজনীতি চায় কিনা, সেটা খালেদা জিয়ার বক্তব্য শুনে আমার পক্ষে বলা মুশকিল। কিন্তু বিএনপি যদি এরকম একটা আদর্শ সামনে রেখে নির্বাচনে যায় এবং নির্বাচন যদি সুষ্ঠু এবং নিরপেক্ষ হয়, তারা এটাকে এগিয়ে নিতে পারে। আমি মনে করি সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষ এটা পছন্দ করবে।" -বিবিসি বাংলা

 

১১ মে, ২০১৭ ০০:৩১:৪৫