মিয়ানমারে রয়টার্সের দুই সাংবাদিকের ৭ বছরের জেল
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
 

মিয়ানমারে গ্রেফতার রয়টার্সের দুই সাংবাদিককে রাষ্ট্রীয় গোপনীয়তা আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে সাত বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে দেশটির এক আদালত।

ইয়াঙ্গুনের জেলা জজ আদালত সোমবার এই রায় ঘোষণা করে। সাংবাদিক ওয়া লোন (৩২) এবং কিয়াও সো ও(২৮) এ সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

ইয়াঙ্গুনের উত্তর জেলা জজ ইয়ে লউইন বলেন, সাংবাদিক ওয়া লোন (৩২) এবং কিয়াও সোয়ে (২৮) তথ্য সংগ্রহের সময় দেশের ঔপনিবেশিক যুগের রাষ্ট্রীয় গোপন আইন লঙ্ঘণ করেছিল। এই অপরাধে তাদের দুজনকে ৭ বছর করে কারাদণ্ড দেয়া হলো। আগামী ৩১ ডিসেম্বর থেকে তাদের ওপর এই দণ্ড কার্যকর হবে বলেও জানান ওই বিচারক।

এর আগে জাতিসংঘ, ইউরোপীয় ইউনিয়ন, ফ্রেস ফিডম অ্যাডভোকেট এবং যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, ও অস্ট্রেলিয়াসহ বিভিন্ন দেশ রয়টার্সের আটক দুই সাংবাদিকের মুক্তির দাবি জানিয়েছিল। তাদের সেই দাবি অগ্রাহ্য করে এই রায় ঘোষনা করলেন মিয়ানমার আদালত।

এই রায়ের তীব্র সমালোচনা করেছেন রয়টার্সের প্রধান সম্পাদক স্টিফেন কে এডলার। এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘আজ মিয়ানমারের জন্য একটি দুঃখজনক দিন। একই সঙ্গে আজকের দিনটি রয়টার্স সাংবাদিক ওয়া লোন ও কিয়াউ সোয়ে এবং বিশ্বের যে কোনো সংবাদ মাধ্যমের জন্যই শোকের দিন।’ তিনি এই রায় পুনর্বিবেচনারও দাবি জানিয়েছেন।

রায় ঘোষণার পর দুই সাংবাদিকের একজন ওয়া লোনে বলেন, ‘আমার কোনো ভয় নেই। আমি কোনো অপরাধ করিনি। আমি বিচার, গণতন্ত্র ও স্বাধীনতায় বিশ্বাস করি।’

গত ১২ ডিসেম্বর ইয়াংগনের এক রেস্তোরা থেকে আটক করা হয়েছিলো ওই দুই সাংবাদিককে। মিয়ানমারের দাবি তারা রাষ্ট্রের গোপন খবর পাচার করার সময় তাদের হাতে নাতে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তবে এই অভিযোগ বরাবরই অস্বীকার করেছেন ওয়া লোন ও কিয়াউ সোয়ে। তারা বলেন, এটা ছিলো পুলিশের একটা সাজানো নাটক।

০৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১১:২১:৫৮