৩ সেপ্টেম্বর মিয়ানমারে কারাবন্দী দুই রয়টার্স সাংবাদিকের রায়
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
ওয়া লোন ও কিয়াও সোয়ে। মিয়ানমারের রাখাইন স্টেটে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা নিপীড়ন ও গণহত্যার তথ্য উপাত্ত সংগ্রহের সময় মিয়ানমারে আটক করা হয় এই দুই রয়টার্স সাংবাদিককে। ইয়াঙ্গুনের একটি আদালতে আজ ২৭ আগস্ট সোমবার ওই দুই সাংবাদিকের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের রায় ঘোষণা কথা ছিল। একদম শেষ সময়ে তা  স্থগিত ঘোষণা করে নতুন তারিখ নির্ধারন করেছে আদালত। ২৭ আগস্টের পরিবর্তে আগামী ৩ সেপ্টেম্বর  রায় ঘোষণা করা হবে বলে জানা গেছে। খবর রয়টার্স।  

রয়টার্সের এই দুই  সাংবাদিকের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রীয় গোপনীয়তা আইন লঙ্ঘনের অভিযোগ আনা হয়েছে। এই অভিযোগ প্রমাণিত হলে তাদের ১৪ বছরের জেল হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

অন্যদিকে তাদের আইনজীবী বলছেন, বিচার বিভাগ স্বাধীন হলে ও ন্যায়বিচার হলে তারা মুক্তি পাবেন।

গত ১২ ডিসেম্বর দুই পুলিশের সঙ্গে সাক্ষাৎ ও তথ্য সংগ্রহ করতে গেলে তাদের আটক করা হয়। তখন থেকেই তারা কারাবন্দী হয়ে রয়েছেন। রয়টার্সের পক্ষ থেকে তখন বলা হয়েছিল, তাদের দুই প্রতিবেদককে নৈশ ভোজের জন্য নিমন্ত্রণ করে ডেকে এনে পুলিশ গ্রেফতার করেছে।

এদিকে মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে শরণার্থী হয়ে আসা প্রতি দুই রোহিঙ্গা শিশুর একজন মা অথবা বাবাকে হারিয়েছে এবং পরিবারহীন হয়েছে। এর মূল কারণ সহিংসতা বলে জানিয়েছে দাতব্য সংস্থা সেভ দ্য চিলড্রেন। প্রতিষ্ঠানটির করা নতুন এক গবেষণা প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে।

মিয়ানমারে সংঘটিত এমন ঘটনাকে ‘নিয়মানুগ, নিষ্ঠুর ও ইচ্ছাকৃত হামলা’ বলে অভিহিত করেছে সেভ দ্য চিলড্রেন। এসব ঘটনায় অপরাধীদের আন্তর্জাতিক অপরাধ আইন অনুযায়ী শাস্তির আহ্বান জানিয়েছে সংস্থাটি। একই সঙ্গে জাতিসংঘে সব দেশের প্রতিনিধিদের এ উদ্যোগকে সমর্থন জানানোর আহ্বানও জানানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, গেলো বছরের ২৫ আগস্ট মিয়ানমারের রাখাইনে সেনা অভিযান শুরু হলে প্রায় সাত লাখ রোহিঙ্গা প্রতিবেশী বাংলাদেশে পালিয়ে আসে।

 

২৭ আগস্ট, ২০১৮ ১১:৫৩:০৭