চীনা সাংবাদিকের পাঁচ বছরের কারাদণ্ড
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
সাংবাদিক গাও ইউ ডিড
রাষ্ট্রীয় গোপন তথ্য ফাঁসের দায়ে চীনের এক সাংবাদিকের কারাদণ্ড বহাল রেখেছে সে দেশের আদালত। তবে ৭১ বছর বয়সী গাও ইউ ডিডের সাজার মেয়াদ সাত বছর থেকে কমিয়ে পাঁচ বছর করা হয়েছে।

গত বছর এপ্রিল মাসে এ রুদ্ধদ্বার কারাগারে তাকে সাজা দেয়া হয় এবং তিনি সেটির বিরুদ্ধে আপীল করেন। কিন্তু আপিলেও তিনি রেহাই পাননি।

বিভিন্ন আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা এই রায়ের নিন্দা জানিয়ে বলেছে এটি ‘রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত।’

তার আইনজীবী বলেন , “ আমারা আশা করেছিলাম তিনি মুক্তি পাবেন। কিন্তু দুই বছর সাজা কমানোটাও ভালো খবর।”

সুপরিচিত অনুসন্ধানী সাংবাদিক গাও-এর বিরুদ্ধে অভিযোগ হচ্ছে ,তিনি আমেরিকা-ভিত্তিক চীন ভাষার একটি খবরের ওয়েবসাইটকে কমিউনিস্ট পার্টির অভ্যন্তরীণ একটি দলিল পাঠিয়েছিলেন।

প্রথম রায়ে বলা হয়েছিল সাংবাদিক গাও বিদেশীদের কাছে রাষ্ট্রের গোপন দলিল পাচার করেছেন।

তবে সাংবাদিক গাও কোন দলিল পাঠানোর কথা অস্বীকার করেন। একই সাথে সেই সংবাদসংস্থাটিও বলেছিল যে গাও কোন তথ্য দেয়নি। তবে তার সাজা কেন কমানো হলে সে বিষয়ে কোন ব্যাখ্যা দেয়া হয়নি। গাও-এর ছেলে তার মায়ের স্বাস্থ্য নিয়ে উদ্বিগ্ন। তিনি আশংকা করছেন কারাগারেই তার মায়ের মৃত্যু হতে পারে। কারণ এখন তার বয়স ৭১ বছর।

১৯৮৯ সাল থেকে সাংবাদিক গাও এ পর্যন্ত তিনবার কারাগারে গেছেন।

বিবিসির সংবাদদাতা বলছেন চীনের রাজনীতি নিয়ে মাও-এর ধারাবাহিক লেখালেখির কারণে তিনি ক্ষমতাসীনদের চক্ষুশূল হয়েছেন। চীনের একজন সুপরিচিত মানবাধিকার কর্মী হু জিয়া মনে করেন সাত বছর থেকে কমিয়ে সাজার মেয়াদ পাঁচ বছর করার কোন অর্থ নেই । তিনি বলেন, “ গাও-এর মতো নিরপরাধ একজনকে পাঁচ মিনিট কারাগারে আটকে রাখাও মানবাধিকারের লঙ্ঘন।”

২৬ নভেম্বর, ২০১৫ ২১:১৮:২৪