প্রকাশিত হলো ‘শঙ্খচিল’ এর শহীদ কাদরী সংখ্যা
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
ঢাকা থেকে প্রকাশিত হলো শিল্প সাহিত্যের পত্রিকা ‘শঙ্খচিল’ -এর শহীদ কাদরী সংখ্যা। প্রায় শতাধিক কবি, লেখক ও শিল্পীর লেখায় সমৃদ্ধ সংখ্যাটি পাওয়া যাবে আসছে একুশে বইমেলার লিটলম্যাগ চত্বরে। মাহফুজ পাঠক ও ইকবাল মাহফুজ সম্পাদকদ্বয় জানিয়েছেন- ‘আমরা শহীদ কাদরীর উপরে সংখ্যা প্রকাশের কাজ শুরু করি তাঁর মৃত্যুর প্রায় তিন মাস পূর্বে। সংখ্যা প্রকাশের মতামত জানিয়ে তাঁকে চিঠি লিখি। কবিপত্নী নীরা কাদরী সেই চিঠি কবিকে পড়ে শুনিয়েছিলেন। সংখ্যাটিতে দেশ ও বিদেশ থেকে যারা বিভিন্ন তথ্য, ছবি ও বই সরবরাহ করে সহযোগিতা করেছেন, তাদের প্রতি আমাদের কৃতজ্ঞতা।’

 সংখ্যাটিকে একটি বৈচিত্রপূর্ণ সংখ্যা করার লক্ষে স্মৃতিমেঘ, জলছায়া, আড্ডা, নিবেদিত কবিতা, দীর্ঘ কবিতা, সনেট, অনুগল্প এমন কিছু বিষয়ে কাদরীর কবি জীবনকে তুলে ধরার চেষ্টা করা হয়েছে। এছাড়া প্রতিকৃতি বিভাগে রয়েছে কাইয়ুম চৌধুরী ও মুর্তজা বশীরসহ আরো ৬ শিল্পীর আঁকা শহীদ কাদরীর প্রতিকৃতি। রয়েছে ৬টি কবিতার অনুবাদ। সংগীত বিভাগে কবীর সুমন, মুয়ীয মাহফুজ ও তাজুল ইমামের লেখাগুলো সংখ্যাটিকে সমৃদ্ধ করেছে।

সাক্ষাৎকার বিভাগে রয়েছে আদনান সৈয়দের নেয়া শহীদ কাদরীকে নিয়ে মাহমুদুল হকের স্মৃতিচারণ। এছাড়া তমিজ উদ্দীন লোদী, শামস আল মমীন ও শিখা আহমেদের নেয়া শহীদ কাদরীর দীর্ঘ সাক্ষাৎকার।

 চিত্রকথা বিভাগে নাসির আলী মামুনের লেখায় উঠে এসেছে আটলান্টিকের পাড়ে সমুদ্রের বিশালতা আর কাদরীর স্বেচ্ছানির্বাসনের ক্ষুদ্রতা। আল মাহমুদ স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে বলেছেন- ‘শহীদ কাদরী সাহেব সুখী হতে চেয়েছিলেন।’ জার্মানি থেকে শঙ্খচিলের জন্য হাতে লিখে অলোকরঞ্জন দাশগুপ্ত জানিয়েছেন শহীদ কাদরীর সাথে তাঁর প্রথম ও শেষ দেখার স্মৃতিকথা।

 এছাড়া কবির ৮টি কবিতা নিয়ে এঁকেছেন ৮ জন শিল্পী। কবিকে চিঠি লিখেছেন হাফিজুর রহমান, আজাদ আলাউদ্দীন ও তরুণ কবি শ্বেতা শতাব্দী এষ। সংখ্যাটি গবেষণার ক্ষেত্রে সহযোগী হতে পারে। ৩৫২ পৃষ্ঠার (পেপারব্যাক) সংখ্যাটির মূল্য রাখা হয়েছে ১৫০ টাকা। বিপ্লব সরকারের আঁকা তরুণ শহীদ কাদরীর প্রতিকৃতি অবলম্বনে প্রচ্ছদ করেছেন সব্যসাচী হাজরা। 

২০ জানুয়ারি, ২০১৭ ২৩:০৮:০১