দেশে মাটিতে শায়িত হলেন কবি শহীদ কাদরী
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
কবি শহীদ কাদরী
প্রিয় দেশের মাটিতে শায়িত হলেন প্রয়াত কবি শহীদ কাদরী। দেশে আনার পর দুপুরে মিরপুর বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে তার মরদেহ। এর আগে সকালে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে তার মরদেহ নিয়ে আসা হয়। সেখানে ভক্ত, সাংস্কৃতিক কর্মীসহ সর্বস্তরের মানুষ শ্রদ্ধা-ভালোবাসা নিবেদন করেন কবির প্রতি।

গত রোববার নিইইয়র্কে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন ৭৪ বছর বয়সী কবি। রাষ্ট্রীয় ব্যবস্থাপনায় বুধবার সকালে তার মরদেহ ঢাকায় এসে পৌঁছায়। পারিবারিক বাসা ঘুরে ১১টার দিকে শহীদ মিনারে আনা হয় কবির মরদেহ।

শ্রদ্ধা নিবেদনের শেষে কবির মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় মসজিদে। জোহরের নামাজের পর সেখানে তার জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

তার কবিতা ধারণ করেছে দেশের ও বিশ্বের নানা সংকট ও বিপর্যয়। চেতনার শিল্পিত রূপান্তর ঘটেছে শব্দবন্ধের মধ্য দিয়ে। তার শিল্পবোধের মূলে আধুনিকতা থাকার কারণেই তাকে পাশ্চাত্য রুচির অনুগামী বলে বোধ হয়। তবু বিষয়ের ব্যক্তরূপ যখন কবিতায় উঠে আসে, তখন সেই রূপে দেখা যায় বাংলার রূপকল্প।

তার লেখার পরিমাণ খুব বেশি নয়। লিখে লিখে অজস্র গ্রন্থও প্রকাশ করেননি তিনি। মাত্র চারটি কাব্যগ্রন্থের কবিতাই আমাদের লভ্য। তবু এ পরিমাণসামান্য কবিতাতেই কবি হয়ে চিরস্থান দখল করে নিয়েছেন বাংলা ভাষাভাষীদের হূদয়ে। তিনি শহীদ কাদরী। যিনি স্বেচ্ছা নির্বাসনে গিয়েছিলেন ১৯৭৮ সালে।

তিনি ১৯৪২ সালের ১৪ আগস্ট ঢাকায় জন্মগ্রহণ করেন। কবিকে ১৯৭৩ সালে বাংলা একাডেমি পুরস্কার দেয়া হয়। ২০১১ সালে দেয়া হয় একুশে পদক। ১৯৭৮ সালে দেশ ছাড়ার পর জার্মানি ও ইংল্যান্ড হয়ে শেষে যুক্তরাষ্ট্রে থিতু হন তিনি। তিনি ১৯৪২ সালের ১৪ আগস্ট ঢাকায় জন্মগ্রহণ করেন। কবিকে ১৯৭৩ সালে বাংলা একাডেমি পুরস্কার দেয়া হয়। ২০১১ সালে দেয়া হয় একুশে পদক। ১৯৭৮ সালে দেশ ছাড়ার পর জার্মানি ও ইংল্যান্ড হয়ে শেষে যুক্তরাষ্ট্রে থিতু হন তিনি। শেষ পর্যন্ত প্রিয়তমা দেশের কোলে চির নিদ্রায় শায়িত হলেন কবি শহীদ কাদরী।

 

৩১ আগস্ট, ২০১৬ ২২:২১:১৯