তোমার হাসিতে সতেজ আমি
জোবায়ের আহমেদ নবীন
অ+ অ-প্রিন্ট
পদ্মঝিলে ভাসমান শৈবাল আর শামুকের

ধীর গতির রহস্য আমি জানি না,

আমি জানি না, কেন মানুষের হৃদয়

বারংবার মেঘাচ্ছন্ন হয়।

রোদেলা দুপুরে বিনম্র মানুষের গাঢ় নীল দুঃখগুলো

প্রফুল্ল তারার মত, কেন জ্বল জ্বল করে তাও আমি জানি না,

আমি জানি না, প্রাচীন কূপের মাঝে জলপতনের ধ্বনিগুলো

কেন এতটা সজীব.............. প্রানবন্ত।

মানুষের পোষা দুঃখগুলো হৃদয়ের ধূলায় যখন গড়াগড়ি খায়, অবাঞ্ছিত অভিলাষে চাহিদার পাপড়ি গুলো

তখন ডানা মেলতে শুরু করে।

চুপচাপ সন্ধ্যা বেলা বৃষ্টি মাথায় নিয়ে মেঠো পথে

হেটে চলা পথিকের মতো; আমার হৃদয়েও রয়েছে

গন্তব্যে পৌঁছানোর নিষ্ফল উচ্ছাস।

দিনের উজ্জ্বলতাকে ম্লান করে তীব্র শোকে

যখন বিমর্ষ কালো হয় রাতের আকাশ,

তখন মাঝরাতে বাতাসের পাপড়িতে ভর করে

বুনো গোলাপের গন্ধ ভেসে আসে।

জ্যোৎস্নার গাঢ় লিকার পান করে... করে

নেশায় বুদ হয়ে নির্জন নীল আকাশের মত

যখন বিশাল হয় আমার মনের আকাশ;

তখন ঐ নামহীন শূন্যতা পূরণের জন্যে

স্বপ্নের মানচিত্রে তোমার জন্যে জেগে ওঠে গাঢ় আকাঙ্খা।

বর্ষার জলজ আদরের মত তোমার সেই

ঝর ঝরে রোদেলা হাসি নিমিষেই

আমার মেঘাচ্ছন্ন হৃদয়ের গাঢ় নীল দুঃখ গুলোকে

ভরদুপুরের চাঁদের মতো নিশ্চিহ্ন করে দেয়।

অবশ দুপুরে নক্ষত্র পুষ্পের মতো তোমার অপলক দৃষ্টি

আমার হৃদয়ের অনুভূতির লালচে পাতাগুলোকে

সবুজ করে তোলে।

তোমার হাসির শব্দে ক্ষয়িষ্ণু শেষরাতে

অসীম আকাশের নিচে

জ্যোৎস্নায় ভিজে অনাবিল তৃপ্তিতে

চৈতনাহীন এই আমি সতেজ হয়ে ওঠি।

১৪ জুলাই, ২০১৬ ১৭:৫৩:১৯