তুমিহীনা বিবর্ণ রাতে
জোবায়ের আহমেদ নবীন
অ+ অ-প্রিন্ট
তোমার স্মিত মুখের ভয়লেশহীন দ‌্যুতি

অষ্টপ্রহর আমায় বিচলিত করে,

মাঝে মাঝে দুর্গম পাহাড়ের বুকে

কংক্রিটের আলিশান দুর্গ দেখার মতো

চমকে উঠি আমি।

এরপর...

মন পাঠশালায় মনোযোগী ছাত্র হয়

আমার এই ব্যকরণহীণ প্রাণ,

তবুও; তোমার গাঢ় নীল চোখের

গভীরতা মাপার মোহ আমার কাটে না।

তুমি হয়তো জানো না-

কতবার নিঃশব্দে দাঁড়িয়েছি তোমার পাশে;

চোখ বন্ধ করে অনুভব করেছি তোমার অস্তিত্ব,

প্রতিবারই তোমার মৃদু হাসির আস্তরণে

ঢাকা পড়েছি আমি।

তুমি পাশে থাকলে হৈমন্তি সন্ধ্যায়

রামু কাকার বাজানো অ্যাকর্ডিয়নের আওয়াজে

হেরে গলায় আমারো গাইতে ইচ্ছে করতো,

তোমার শান্ত চোখে তাকিয়ে

কতশত কল্পনায় মশগুল হতাম আমি।

সেই সময় গানতো দুরের কথা

স্বরও ফুটতো না আমার গলায়।

তুমিহীনা বিবর্ণ রাতে রূপসী চাঁদের আলোতেও

চারপাশটা যখন ফ্যাঁকাশে লাগে,

জানালার শার্শির গায়ে অলস বাতাস

আছড়ে পড়ে; তখন তোমার কথা ভেবে

আমার অস্বস্তির ছায়া কাটে।

আমার পানসে জীবনের ধোঁয়াটে আকাশে

তোমার উন্মূক্ত পদচারণা আছে বলেই;

প্রতিনিয়ত ভালো থাকার চেষ্টা করি

শুধু তোমার জন্য।

০১ মার্চ, ২০১৬ ২২:৫৭:০৪