অনলাইনে ডেটিং করছেন? ঠকছেন না তো?
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
ব্যস্ত জীবনে মনের মানুষ খোঁজার জন্য সময় খুবই কম। তাই অনলাইন ডেটিংয়ের এখন রমরমা বাজার। একটু সময় পেলেই কম্পিউটরের সামনে বসে অনলাইনেই চলছে সঙ্গী খোঁজার পালা। কিন্তু জানেন কী, এই অনলাইন ডেটিংয়ের ফাঁদে পড়েই আপনার সমূহ ক্ষতি হয়ে যেতে পারে?

কারোর ছবি দেখে, প্রোফাইলে একবার চোখ বুলিয়ে আপনি তাকে সঙ্গী হওয়ার দরজা দিয়ে দিচ্ছেন। কখনও কখনও কেউ কেউ এর ফায়দা তুলতে পারে। অনেক সময় দেখা যায় কেউ এমন কারওর সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়েছে যার আগে থেকেই বয়ফ্রেন্ড বা গার্লফ্রেন্ড ছিল। তাদের সঙ্গে হয়তো কোনও সমস্যা হয়েছে তাই ক্ষণিকের সিদ্ধান্তে সে ডেটিং সাইটে সে নিজের প্রোফাইল খুলেছে। কখনও আবার বয়ফ্রেন্ড বা গার্লফ্রেন্ডকে ঈর্ষান্বিত করার জন্যও ডেটিং সাইটে নিজের নাম নথিভুক্ত করে কেউ কেউ।

অনেক সময় পূর্ববর্তী সম্পর্ক ভুলতেও কেউ কেউ ডেটিং অ্যাপের সাহায্য নেয়। একজনের এমন অভিজ্ঞতা হয়েছিল। সে বলেছিল, ডেটিং সাইটের মাধ্যমেই একজনের সঙ্গে আলাপ হয় তার। সম্পর্ক ভালই চলছিল। কিন্তু মাস দুয়ের পর সে জানতে পারে অ্যাকাউন্ট খোলার আগে তার সঙ্গীর একজনের সঙ্গে সম্পর্কে ছিল। সম্পর্ক ভাঙার পরই সেই ব্যক্তি অ্যাকাউন্ট খোলে। প্রাক্তনীকে ভোলার জন্য তার কাউকে দরকার ছিল। সেই চাহিদা মেটায় ডেটিং সাইট।

ডেটিং সাইটে আর্থিক প্রতারণার ঘটনা আকছারই ঘটে। দেখা গেছে, ডেটিং সাইটে আলাপ পরিচয় হওয়ার পর অনেকে সিরিয়াসলি সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। উলটোদিকের মানুষের সঙ্গে সে ডেটে যায়, নানারকম উপহার কিনে দেয়। অনেক সময় তো আবার ছুটি কাটাতেও বেরিয়ে পড়ে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত দেখা যায় মানুষটি সরাসরি বলে “আমি তো তোমাকে বন্ধুর মতো দেখি। তুমি এতদিন ভুল ভেবেছ।” তখন তার পিছনে খরচ করা টাকার হিসাব মাথায় আসে।

অনেক সময় বিদেশযাত্রার জন্যও অনেকে ডেটিং অ্যাপকে হাতিয়ার করে। একজন জানিয়েছে, সে ইউরোপে চাকরি করত। মাস দুয়েকের জন্য ভারতে এসেছিল। তখন ডেটিং সাইটের মাধ্যমে তার একজনের সঙ্গে আলাপ। তারপর তারা দেখা করে। কিন্তু যখন সেই ব্যক্তি সঙ্গীকে জিজ্ঞাসা করে কেন সে সম্পর্কে রাজি হয়েছে, সঙ্গী তৎক্ষণাৎ উত্তর দেয় ইউরোপে সেটল করার জন্যই সে সম্পর্কে রাজি হয়েছে।

সবচেয়ে বেশি যে সমস্যাটি অনলাইন ডেটিংয়ের ক্ষেত্রে হয়, তা হল ভুয়ো পরিচয়। প্রোফাইলে ছবি থাকে একজনের। কিন্তু যখন দেখা হয়, তখন দেখা যায় সম্পূর্ণ এক অন্য মানুষ। কতজন যে এই ঘটনার শিকার হয়েছে, তা বলা মুশকিল। -সংবাদ প্রতিদিন

 

 

 

 

১০ জুলাই, ২০১৮ ১১:০১:২১