যে ৭ খাবার আপনার কর্মক্ষমতা বাড়িয়ে দেবে
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
ডেস্কে বসে টানা কাজ করলে আপনার ক্ষুধা লাগতে পারে। বিরক্তিকর কোনো কাজ করার সময় আপনি ঝিমিয়ে পড়তে পারেন। কাজের শেষের দিকে নিষ্ক্রিয়, অলস এমনকি আপনার ঘুমও আসতে পারে। কাজের গতি আনার জন্য অনেকে বিকেলে জাঙ্কফুড খেয়ে থাকেন। এধরনের খাদ্যাভ্যাস স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর।

অফিসে মজাদার এবং স্বাস্থ্যসম্মত খাবার খেলে আপনি সারাদিন ফুরফুরে থাকবেন। ৭ রকমের খাবার খেলে আপনি অফিসে ঝিমিয়ে পড়বেন না। আপনি আরো কর্মক্ষম হয়ে উঠবেন।

১. ডিম : ডিমে উচ্চমাত্রায় প্রোটিন থাকে। সকালের নাশতায় ডিম খেলে সারাদিন কাজে শক্তি পাবেন। ডিমে থাকা ভিটামিন, মিনারেল এবং প্রোটিন দীর্ঘক্ষণ বসে কাজ করার শক্তি জোগাবে।যে ৭ খাবার আপনার কর্মক্ষমতা বাড়িয়ে দেবে

২. শস্য দানার রুটি : শস্য দানার রুটি স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী। এতে উচ্চমাত্রায় ফাইবার, ভিটামিন ই এবং ভিটামিন বি কমপ্লেক্স থাকে। আপনি দীর্ঘক্ষণ কাজ করার শক্তি পাবেন। ব্রাঞ্চের খাবার (সকাল ও দুপুরের খাবার একসঙ্গে খাওয়া) হিসেবে খেতে পারেন। এতে শরীরের অলসতা দূর হবে।

৩. জাম্বুরা : সুস্বাদু এবং তাজা ফল জাম্বুরা দিনের যেকোনো সময় খেতে পারেন। ভিটামিন সি, পাইটোনিউট্রিয়েন্টস এবং ফলেইট সমৃদ্ধ এই রসালো ফলটি রোগ প্রতিরোধ করে এবং শরীরে তাৎক্ষণিক শক্তি জোগায়।যে ৭ খাবার আপনার কর্মক্ষমতা বাড়িয়ে দেবে

৪. কিউই ফল : দুপুরের খাবারে কিউই ফল সালাদ হিসেবে খেলে শরীরের ক্লান্তি দূর করবে। খাওয়ার পর ঘুম ঘুম ভাব কেটে যাবে। কিউই ফলে কপার এবং ভিটামিন সি রয়েছে যা শরীর সচল রাখে।যে ৭ খাবার আপনার কর্মক্ষমতা বাড়িয়ে দেবে

৫. শণ বীজ : ডায়েট চার্টে শণ বীজ যুক্ত করুন। এতে ওমেগা ৩ ফ্যাটিএসিড রয়েছে যা শরীরের রোগ প্রতিরোধ বৃদ্ধি করে এবং শক্তি উৎপাদনে সাহায্য করে। কিছু শণ বীজ গুড়া করে একটি পাত্রে রেখে দিন। স্বাদ বৃদ্ধি এবং সুস্বাস্থ্যের জন্য খাবারে শণ বীজ গুড়া ছিটিয়ে দিন।যে ৭ খাবার আপনার কর্মক্ষমতা বাড়িয়ে দেবে

৬. বেরি ফল : বেরি ফলে প্রচুর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, ফাইবার এবং ভিটামিন রয়েছে। এটি একটি পুষ্টিসমৃদ্ধ এই ফল খেলে সারাদিন আপনাকে শারীরিক এবং মানসিকভাবে সক্রিয় রাখবে।যে ৭ খাবার আপনার কর্মক্ষমতা বাড়িয়ে দেবে

৭. প্রোটিন বার : শরীর যখন ক্লান্ত লাগলে প্রোটিন বার চাবান। সবচেয়ে ভালো হয় অফিস চলাকালে যখন আপনার ঘুম আসবে এটি খান। এতে শরীরে শক্তি পাবেন। বিকেলের নাশতা হিসেবে খেতে পারেন। তবে বাসায় ফেরার আগ মুহূর্তে ক্ষুধার্ত অবস্থায় কখনোই খাবেন না।

তথ্যসূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া।

২৭ জানুয়ারি, ২০১৭ ১৭:৫৮:২০