সমকামিতার কারণে ভয়াবহ শাস্তি
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
সমকামিতা কি? উইকিপিডিয়ার মতে সমকামিতা বলতে বোঝায়, সমলিঙ্গের ব্যক্তির প্রতি স্নেহ বা প্রণয়ঘটিত এক ধরণের যৌন প্রবণতা। এ প্রবণতা কি ব্যধি না সুস্থ মানসিকাতর যৌন আকাক্সক্ষা? বিষয়টি বিতর্কের। তবে সমকামিতা যে কোনো ধর্মেই নিষিদ্ধ। ধর্মে কোনো কিছু নিষিদ্ধের একটি কারণ হচ্ছে তা সমাজের জন্য ক্ষতিকর। ধর্ম কোনো ক্ষতিকর বিষয়কে সমাজের জন্য অনুমতি দেয় না।
পশ্চিমা বিশ্বে সমকামিতার বৈধতা নিয়ে আন্দোলন চললেও এবার তা শুরু হয়েছে বাংলাদেশেও। সমকামীদের একটি গ্রুপ এই প্রথম সমকামী নারী কমিক চরিত্র তৈরি করেছে। গ্রুপটি বলছে, সমকামিতার ব্যাপারে লোকজনকে সচেতন করতেই তাদের এই উদ্যোগ।
তাদের শ্লোগান কমিক স্ট্রিপের এই কার্টুন চরিত্রটির মধ্য দিয়ে সারা দেশে ভালোবাসার স্বাধীনতার বার্তা পৌঁছে যাবে। তারা বলছেন, কে কাকে ভালোবাসবে এই সিদ্ধান্ত ও স্বাধীনতা তার নিজের। বাংলাদেশে সমকামিতা অপরাধ হিসেবে বিবেচিত। এ জন্যে সমকামী নারী ও পুরষকে গোপনে তাদের জীবন যাপন করতে হয়!
সমকামিতার বৈধতার চ্যালেঞ্জ নিয়ে মাঠেও নেমেছে সমকামীরা। ২০১৪ সালের বাংলা নববর্ষে প্রথম সমকামীরা র‌্যালি বের করে। সম্প্রতি সমকামীদের সম্মেলনও হয়ে গেল। দিন যেতে যেতে সমকামিদের আন্দোলন আরও তীব্র হবে। বিষয়টি নিয়ে ভাবতে হচ্ছে সুশীল সমাজকে।
ইসলামে সমকামিতাকে ব্যভিচারের চেয়েও ভয়ঙ্কর ঘোষণা করা হয়েছে। আল্লাহ তাআলা হযরত লুত আ. এর কালের লোকদের শুধুমাত্র এই কারণেই সমূলে ধ্বংস করে দিয়েছিলেন যে, তারা সমকামী ছিল।
কোরআনে সমকামীদের শাস্তির ঘটনাটি বর্ণিত হয়েছে এভাবে “আর তাঁর কওমের লোকেরা স্বতঃস্ফূর্তভাবে তার (গৃহ) পানে ছুটে আসতে লাগল। পূর্ব থেকেই তারা কু-কর্মে তৎপর ছিল। লুত আ. বললেন-হে আমার কওম! আমার কন্যারা রয়েছে, এরা তোমাদের জন্য অধিক পবিত্রতমা। সুতরাং তোমরা আল্লাহকে ভয় কর এবং অতিথিদের ব্যাপারে আমাকে লজ্জিত করো না, তোমাদের মধ্যে কি কোন ভাল মানুষ নেই।
তারা বলল, তুমি তো জানই, তোমার কন্যাদের নিয়ে আমাদের কোন আগ্রহ নেই। আর আমরা কি চাই, তাও তুমি অবশ্যই জান।
লূত আ. বললেন-হায়, তোমাদের বিরুদ্ধে যদি আমার শক্তি থাকত অথবা আমি কোন সুদৃঢ় আশ্রয় গ্রহণ করতে সক্ষম হতাম।
মেহমান ফেরেশতারা বললেন, হে লূত! আমরা তোমাদের পালনকর্তার পক্ষ হতে প্রেরিত ফেরেশতা। এরা কখনো তোমার দিকে পৌঁছাতে পারবে না। ব্যস তুমি কিছুটা রাত থাকতে থাকতে নিজের লোকজন নিয়ে বাইরে চলে যাও। আর তোমাদের কেউ যেন পিছনে ফিরে না তাকায়। কিন্তু তোমার স্ত্রী নিশ্চয় তার উপরও তা আপতিত হবে, যা ওদের উপর আপতিত হবে। ভোর বেলাই তাদের প্রতিশ্রুতির সময়, ভোর কি খুব নিকটে নয়?
অবশেষে যখন আমার হুকুম এসে পৌঁছাল, তখন আমি উক্ত জনপদকে উপরকে নিচে করে দিলাম এবং তার উপর স্তরে স্তরে কাঁকর পাথর বর্ষণ করলাম। {সূরা হুদ-৭৮-৮২}
সমকামিতার কারণে হযরত লুতের উম্মতদের ধ্বংস করার বর্ণনা আল্লাহ তায়ালা এভাবেই কোরআনে এনেছেন। ব্যভিচারের কারণে আল্লাহ তায়ালা কোনো জনপদকে ধ্বংস করে দিয়েছেন এমন ঘটনা কোরআনের কোথাও উল্লেখ নেই। এতে স্পষ্ট হয় ব্যভিচারের চেয়েও সমকামিতা আল্লাহর নিকট সবচেয়ে বড় অপরাধ।
হাদিসে সমকামিতাকে জ্বেনার সমতুল্য বলে আখ্যায়িত করে কঠিন শাস্তির কথা বর্ণিত হয়েছ। হযরত আবু মুসা আশআরী রা. থেকে বর্ণিত। রাসুল সা. বলেছেন, যে পুরুষ পুরুষের সাথে নোংরা কাজে লিপ্ত হয়, উভয়ে ব্যভিচারকারী হিসেবে সাব্যস্ত হবে। তেমনি যে নারী আরেক নারীর সঙ্গে কুকর্মে লিপ্ত হয় উভয়ে ব্যভিচারকারী হিসেবে সাব্যস্ত হবে। (শুয়াবুল ঈমান)
হযরত ইবনে আব্বাস রা. থেকে বর্ণিত। রাসুল সা. ইরশাদ করেছেন, লুত আ. এর কওমের মত কুকর্মে লিপ্ত উভয়কে হত্যা করে ফেল। (মুসনাদে আহমাদ, সুনানে ইবনে মাজাহ,সুনানে আবু দাউদ)
“ইবনে আব্বাস বলেন, রাসুল (স) বলেছেন, তোমরা যদি কাউকে পাও যে লুতের সম্প্রদায় যা করত তা করছে, তবে হত্যা কর যে করছে তাঁকে আর যাকে করা হচ্ছে তাকেও।” (আবু দাউদ ৩৮:৪৪৪৭)
“জাবির (রা) থেকে বর্ণিত, রাসুল (সা) বলেছেন, আমি আমার উম্মতের জন্য সবচেয়ে বেশি যে জিনিসটা আশঙ্কা করি সেটা হল লুতের উম্মত যা করত সেটা যদি কেউ করেৃ ” (তিরমিজি)
কোরআন হাদিসে এভাবেই সমকামকে কঠিন অপরাধ বলে উল্লেখ করা হয়েছে। শুধু অপরাধ নয়, সমকামিতার কারণে ভয়াবহ শাস্তিও নেমে আসার হুমকি দেওয়া হয়। শাস্তি যখন আসবে শুধুমাত্র সমকামীদের ওপর নয়, ভাল মন্দ সবার ওপরেই আসবে।
১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৫ ১৪:০৩:৫৫