বজ্রপাত ও গাছ উপড়ে উত্তর প্রদেশ ও উড়িষ্যায় ১০ জনের মৃত্যু
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
উত্তর প্রদেশে ঘূর্ণিঝড় ফণীর প্রভাবে সৃষ্ট বজ্রপাতে ও গাছ উপড়ে অন্তত ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে উত্তর প্রদেশে আট জন ও উড়িষ্যায় দুই জনের মৃত্যু হয়েছে।  খবর দ্য হানস ইন্ডিয়া ও হাফপোস্টের। হানস ইন্ডিয়া জানায়, বৃহস্পতিবার (২ মে) রাতে উত্তর প্রদেশের চান্দাওলিতে জেলায় বজ্রপাতে মৃত্যু হয়েছে চার ব্যক্তির। একই ঘটনায় গুরুতর আহত হন আরও পাঁচ জন। একই জেলায় গাছ উপড়ে প্রাণহানি ঘটেছে এক বৃদ্ধ ব্যক্তির।

একই রাতে সোনেভারদা জেলার পান্নুগঞ্জে বজ্রপাতে মারা যান এক তরুণ। একই ঘটনায় গুরুতর আহত হয় দুই ভাই। তাদের পরবর্তীতে হাসপাতালে ভর্তি করা হলে শুক্রবার (৩ মে) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় তাদের।

এদিকে, উড়িষ্যার বিশেষ ত্রাণ কমিশনার বিষ্ণুপাডা সেঠি বলেন, এখন পর্যন্ত আমি দুই জনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করতে পারবো। এর মধ্যে একজন, আশ্রয়কেন্দ্রে ‘হার্ট অ্যাটাকে’ মারা গেছেন। অপর একজন আমাদের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ঝড়ের মধ্যে বাইরে যান। সেসময় তার ওপর একটি গাছ উপড়ে পড়লে তিনি মারা যান।

উল্লেখ্য, প্রাথমিকভাবে দ্য হিন্দু জানায়, ঘূর্ণিঝড়ের কবল থেকে বাঁচতে আশ্রয়কেন্দ্রে যাওয়ার পথে গাছ উপড়ে পড়ে এক নারীর মৃত্যু হয়। শুক্রবার প্রদেশটির কেন্দ্রাপারা জেলায় এই ঘটনা ঘটে। ওই নারী সমুদ্র উপকূলবর্তী গ্রাম দেবেন্দ্রনারায়নপুর গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন। তবে এ বিষয়ে কিছু জানাননি কমিশনার।

ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে অঞ্চলটিতে উপড়ে পড়েছে অসংখ্য গাছ। ব্যাহত হচ্ছে যোগাযোগ ব্যবস্থা। এছাড়া, ভারতের বিভিন্ন অঞ্চলে হচ্ছে ভারী বর্ষণ।

উল্লেখ্য, ফণীর প্রভাবে উত্তর প্রদেশে বৈরি আবহাওয়ার সৃষ্টি হয়েছে। স্থানীয় আবহাওয়া অধিদফতর আগামী দুই দিনের জন্য প্রদেশটিতে আবহাওয়া সতর্কতা জারি করেছে।

এদিকে, শুক্রবার সকাল সাড়ে আটটার দিকে উড়িষ্যায় স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে আটটার দিকে ১৪২ কিলোমিটার গতিবেগ নিয়ে পুরি শহরে আঘাত হানে শক্তিশালী এই ঘূর্ণিঝড়।

০৩ মে, ২০১৯ ১৪:২৮:০২