কার্ল মার্কসের সমাধিতে হামলা
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
লন্ডনের এক সমাধিক্ষেত্রে কার্ল মার্কসের সমাধির ওপর তৈরি স্মারক স্তম্ভটির ওপর দুস্কৃতকারীরা হামলা চালিয়ে সেটির বেশ ক্ষতি করেছে। গত সোমবার সকালে কার্ল মার্কসের সমাধি স্তম্ভের ওপর এই হামলার বিষয়টি প্রথম নজরে আসে। কার্ল মার্কসকে সমাহিত করা হয়েছিল লন্ডনের হাইগেট সমাধিতে। সেখানে তার স্মৃতি স্তম্ভের দেখাশোনা করে একটি বেসরকারি ট্রাস্ট, ‘ফ্রেন্ডস অব হাইগেট সেমিট্রি ট্রাস্ট’। এর প্রধান ইয়ান ডাংগাভেল বার্তা সংস্থা এএফপি’কে জানিয়েছেন, কেউ হাতুড়ি দিয়ে উপর্যুপরি এটির ওপর আঘাত হেনেছিল।

হাইগেটে কার্ল মার্কসের সমাধির ওপর নির্মিত স্তম্ভটিতে যে মার্বেল পাথরের ফলক লাগানো আছে, সেখানে তার নাম এবং পরিবারের সদস্যদের নাম আছে। হাতুড়ি দিয়ে আঘাত করা হয় সেই ফলকের ওপরই। ইয়ান ডাংগাভেল বলছেন, ‘বিশেষ করে কার্ল মার্কসের নামটিকেই যেন আঘাত করার জন্য বেছে নেওয়া হয়েছিল। কাজেই এটি কোনও নির্বিচার হামলা নয়, এটি কার্ল মার্কসকে লক্ষ্য করেই চালানো হামলা’। জার্মান বিপ্লবী এবং দার্শনিক কার্ল মার্কস তার জীবনের এক গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায় কাটিয়েছিলেন লন্ডনে। ১৮৪৯ সালে তিনি লন্ডনে আসেন এবং এরপর মৃত্যুর আগ পর্যন্ত এখানেই কাটিয়েছেন। ১৮৮৩ সালের ১৪ মার্চ ৬৪ বছর বয়সে তিনি মারা যান।

কার্ল মার্কসের সমাধির ওপর যে স্তম্ভটি রয়েছে, সেটি নির্মিত হয় ব্রিটেনের কমিউনিস্ট পার্টির টাকায় ১৯৫৬ সালে। তিন দশমিক সাত মিটার উঁচু এই স্তম্ভটির মাথায় রয়েছে কার্ল মার্কসের একটি ব্রোঞ্জের আবক্ষ মূর্তি।

আদি সমাধিতে লাগানো ফলকটিই পরে এই স্মৃতিস্তম্ভে লাগানো হয়েছিল। হাতুড়ির আঘাতে ফলকটির পাথর এবং লেখার বেশ ক্ষতি হয়েছে। বিশেষ করে কার্ল মার্কসের নামের আশে-পাশে, তার স্ত্রীর মৃত্যু তারিখ এবং তাদের নাতি হ্যারি লংগুটের নামের ওপর। হ্যারি মাত্র চার বছর বয়সে মারা যান।

কার্ল মার্কসের স্মৃতি স্তম্ভে এটাই প্রথম হামলা নয়। ১৯৭০ এর দশকে এটির ওপর পাইপ বোমা হামলা হয়। এটির ওপর রঙ মাখিয়ে বা শ্লোগান লিখে রাখার ঘটনাও ঘটেছে অতীতে। কার্ল মার্কসের স্মৃতি স্তম্ভ ব্রিটেন ‘গ্রেড-ওয়ান’ তালিকাভুক্ত ঐতিহাসিক স্থাপনার অংশ। এর মানে হচ্ছে ওই ঐতিহ্য অবশ্যই সংরক্ষণ করতে হবে। প্রতি বছর শত শত পর্যটক হাইগেট সমাধিতে তার স্মৃতিস্তম্ভে শ্রদ্ধা জানাতে যান। সূত্র: বিবিসি

০৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১০:৩৬:০৯