প্রতিহিংসার রাজনীতি করছে মোদি সরকার: মমতা
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট


তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, প্রতিহিংসার রাজনীতি করছে মোদি সরকার। নোট বাতিলের ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন কৃষকরা কৃষকদের ঘুম কেড়ে নিয়েছে মোদি সরকার। ৮ ফেব্রুয়ারির পরেও চলবে ধর্না। তবে ৯ ফেব্রুয়ারি থেকে পরীক্ষার জন্য ধর্নামঞ্চে মাইক বাজবে না। জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি আরও জানিয়েছেন, ধর্না চলাকালীন অন্য কোথাও যাবেন না। সরকার বা দলের কোনও কর্মসূচিও বাতিল করা হবে না। শুধু হুগলিতে একটি কর্মসূচিতে তার যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সেটা পরে করা হবে। তিনি বলেন, ‘‘সাংবিধানিক অধিকার, ব্যক্তিগত অধিকার খর্ব করা হচ্ছে। সারা দেশ থেকে এই আন্দোলনে সমর্থন জানানো হয়েছে। যারা গণতান্ত্রিক ও সাংবিধানিক কাঠামোয় বিশ্বাস করেন, তারাই এই আন্দোলনে সমর্থন জানিয়ে পাশে থাকার বার্তা দিয়েছেন। এটা কোনও একার আন্দোলন নয়।

রোববার রাত ৮টা ৪০ মিনিট থেকে এখনও পর্যন্ত ধর্মতলায় মেট্রো চ্যানেলের সামনে ধর্নায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই ধর্না মঞ্চের পিছনেই রয়েছে কলকাতা পুলিশের একটি আউটপোস্ট। সেখানেই মন্ত্রিসভার বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী। প্রায় আধ ঘণ্টার বৈঠকে মূলত আলোচনা হয় বাজেট নিয়ে। বিধানসভায় অর্থমন্ত্রী বাজেট পেশ করার আগে মন্ত্রিসভার অনুমতি নিতে হয়। সেই জন্যই এই বৈঠক।

বৈঠকের পর মন্ত্রীরা বিধানসভায় যান। সেখানে বাজেট পেশ করেন অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র।

তার আগে এই ধর্না মঞ্চ থেকেই কৃষক সমাবেশে ভিডিও কনফারেন্সে বক্তব্য রাখেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, প্রতিহিংসার রাজনীতি করছে মোদি সরকার। নোট বাতিলের ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন কৃষকরা কৃষকদের ঘুম কেড়ে নিয়েছে মোদি সরকার। তিনি এ দিন আরও বলেন, রাজ্য সরকার সমবায় ব্যাঙ্ককে উন্নত করেছে। এর ফলে কৃষকরা উপকৃত হবেন। চাষীদের জন্য ‘কৃষক বন্ধু’ প্রকল্প চালু করেছে রাজ্য সরকার। কৃষকদের টাকা দিচ্ছে রাজ্য। তথ্যসূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা।









 


০৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১৯:৩২:৩৯