মোদী সরকারের আয়ু আরমাত্র ১০০ দিন: রাহুল
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
ফের কেন্দ্রে এনডিএ-র সরকার গঠিত হবে বলে দাবি করছে বিজেপি শিবির। ফের আরেকবার মোদী সরকার হবে বলেও স্লোগান দিচ্ছে পদ্মের নেতারা। এই অবস্থায় পালটা জবাব দিলেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। তার দাবি, ‘কেন্দ্রের মোদী সরকারের আয়ু আর মাত্র ১০০ দিন।’অর্থাত আগামী তিন মাসের থেকে কিছু বেশি সময়ের মধ্যেই ভারতে শেষ হয়ে যাবে মোদী জামানা। আরও ভালোভাবে বললে আগামী লোকসভা ভোটের পরে আর মোদী সরকারের অস্তিত্ব থাকছে না। বিজেপি নেতাদের ফের একবার মোদী সকারের স্লোগান আসলে ফাঁকা আওয়াজ ছাড়া আর কিছুই নয়। গত শনিবার কলকাতার ব্রিগেড প্যারেড গ্রাউন্ডে এক মহা সমাবেশের আয়জন করে তৃণমূল কংগ্রেস। অবিজেপি সেই রাজনৈতিক সমাবেশে হাজির ছিলেন দেশের তাব্র রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব। কেন্দ্রের সরকার থেকে নরেন্দ্র মোদীকে উৎখাত করতে সকলেই এক বাক্যে রাজি আছেন। এমনই বক্তব্য উঠে এসেছে সকল বক্তাদের বক্তব্যে।

ব্রিগেডের মঞ্চে দেশের রাজনীতির জগতের তারকাদের নিয়ে এসে ইতিহাস রচনা করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। গত ১৯ তারিখের ব্রিগেড সমাবেশ ভারতের রাজনীতির ইতিহাসে দীর্ঘদিন স্মরণে থাকবে তা বলাই বাহুল্য।

সেই সমাবেশের পরে পাল্টা জবাব দিয়েছেন নরেন্দ্র মোদী। ওই দিনই গুজরাটের একটি অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন মোদী। সেখানে তিনি বলেন, ‘সব বিরোধীরা একজোট হয়েছে আমার বিরুদ্ধে। আসলে সবাই বাঁচাও-বাঁচাও করে চিৎকার করছে।’ একাধিক যুযুধান রাজনৈতিক দলের একজোট হওয়াকে নিজের সাফল্য বলেই মনে করছেন মোদী।

এই বিষয়টিকেই কটাক্ষ করেছেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। তার মতে, ‘দেশের লক্ষ লক্ষ বেকার যুবক কাঁদছে। অসহায় কৃষক, দলিত ও সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষ এবং ছোট ব্যবসায়ীরা সবাই ক্ষতিগ্রস্ত।’

এরা সকলেই নরেন্দ্র মোদীর অত্যাচার এবং অপশাসন থেকে মুক্তি পেতে চাইছে বলে দাবি করেছেন রাহুল। তার দাবি, ‘আর ১০০ দিনের মধ্যেই এরা সবাই মুক্তি পাবে।’ নিজের এই বক্তব্য ট্যুইট করে জানিয়েছেন কংগ্রেস সভাপতি। তথ্যসূত্র: কলকাতা ২৪×৭

২২ জানুয়ারি, ২০১৯ ১২:৫২:৫৩