‘বাই বাই’ বলে চলে গেলেন ট্রাম্প
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট


মেক্সিকো সীমান্তে প্রাচীর গড়ার অর্থের অনুমোদন না পেয়ে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বিরোধী ডেমোক্র্যাটিক দলের সঙ্গে বৈঠক থেকে বেরিয়ে গেলেন৷ বিরোধীরা সরকারি ব্যয় অব্যাহত রাখতে নিজস্ব পদক্ষেপ নিচ্ছে৷ মার্কিন প্রশাসনের আংশিক ‘শাটডাউন’ বা অচলাবস্থা কাটাতে বুধবার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বিরোধী ডেমোক্র্যাটিক দলের নেতাদের হোয়াইট হাউসে আলোচনার জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন৷ কিন্তু সেই আলোচনা চলাকালীন ট্রাম্প আচমকা কক্ষ ত্যাগ করে চলে গেলেন৷ তারপরেই টুইট বার্তায় সেই ঘটনার উল্লেখ করে তিনি লেখেন, হাউস অফ রিপ্রেসেন্টেটিভের স্পিকার ও ডেমোক্র্যাট নেতা ন্যান্সি পেলোসি এখনো মেক্সিকো সীমান্তে প্রাচীর গড়ে তোলার প্রস্তাব মানতে নারাজ৷ ট্রাম্প তখন সেই বৈঠকে ‘সময় নষ্ট’ করতে চাননি৷

পেলোসি পরে সাংবাদিকদের হোয়াইট হাউসের ‘শীতল পরিবেশ’-এর উল্লেখ করে বলেন, কয়েকদিন পরেই ফেডারেল সরকারের অনেক কর্মী প্রথমবারের মতো বেতনের চেক পাবেন না, যা অত্যন্ত দুঃখের বিষয়৷ এ বিষয়ে প্রেসিডেন্টের সহানুভূতির অভাবের উল্লেখ করে তিনি পরোক্ষভাবে ট্রাম্প পরিবারের প্রাচুর্যের প্রতি কটাক্ষ করেন৷ পেলোসি বলেন, প্রেসিডেন্ট সম্ভবত ভাবছেন, কর্মীরা তাঁদের বাবাদের কাছে আরো অর্থ চাইলেই পারেন৷ কিন্তু কার্যত সেটা সম্ভব নয়৷

অ্যামেরিকায় দুই রাজনৈতিক দলের মধ্যে সম্পর্ক এতটাই বিষাক্ত হয়ে পড়ছে যে, বৈঠকের ঘটনাবলি নিয়েও দুই রকমের বয়ান শোনা যাচ্ছে৷ সেনেটে ডেমোক্র্যাটিক দলের নেতা চাক শুমার দাবি করেন, ট্রাম্প তাঁর ক্রোধ উগরে দিয়ে টেবিল চাপড়ে চলে যান৷ তাঁর মতে, এমন আচরণ কোনো প্রেসিডেন্টকে মানায় না৷

ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স অবশ্য এমন দাবি উড়িয়ে দিয়ে বলেন, প্রেসিডেন্ট গলা তুলে কথা বলেছেন বা টেবিল চাপড়েছেন, এমন কিছু ঘটেছে বলে তাঁর মনে নেই৷ তিনি অ্যামেরিকার দক্ষিণ সীমান্তে ‘মানবিক ও নিরাপত্তা’ সংকটের উল্লেখ করে বলেন, এমন পরিস্থিতি সত্ত্বেও ডেমোক্র্যাটরা সদিচ্ছা নিয়ে আলোচনা করতে প্রস্তুত নয়৷

রিপাবলিকান দলের সঙ্গে আলোচনা ব্যর্থ হবার পর ডেমোক্র্যাটরা একতরফাভাবে অর্থ মন্ত্রাণলায়সহ বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ দফতরের কাজ আবার শুরু করার পক্ষে ভোট দেন৷ তাদের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে যে, প্রেসিডেন্ট নিজের দাবি পূরণ হওয়া পর্যন্ত প্রশাসনে অচলাবস্থা বজায় রাখতে বদ্ধপরিকর৷ অন্যদিকে ডেমোক্র্যাটিক দল দ্রুত পদক্ষেপ নিয়ে মানুষের জীবনে নিশ্চয়তা ফিরিয়ে আনতে চায়৷ সেনেটে রিপাবলিকান দলের সদস্যরা এই প্রস্তাব অনুমোদন না করলে তারাও এই ‘অরাজকতা ও নিষ্ঠুরতা’-র দোসর হবে বলে ডেমোক্র্যাটরা সতর্ক করে দিয়েছে৷ উল্লেখ্য, বিভিন্ন ক্ষেত্রে সরকারি ব্যয় অব্যাহত রাখতে বিরোধীরা আলাদা আলাদা প্রস্তাব অনুমোদনের উদ্যোগ নিচ্ছে৷ রিপাবলিকান দলের সংসদ সদস্যরা অবশ্য এখনো প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের প্রতি প্রকাশ্য সমর্থন দেখিয়ে চলেছেন৷ বুধবার এক বৈঠকে তাঁরা এই ঐক্য দেখিয়েছেন৷ -ডয়চেভেলে


১০ জানুয়ারি, ২০১৯ ২০:০২:৫৬