‘তিন বছর আগেই ঠিক হয়েছিল ইমরানই হচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী’
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
ইমরান খানের প্রধানমন্ত্রী হওয়া এখন সময়ের অপেক্ষা। কিন্তু শুরু থেকেই ইমরানের এই জয়ের পিছনে সেনাবাহিনীর হাত থাকার কথা বলেছেন তাঁর প্রাক্তন স্ত্রী রেহাম খান। তিনি বলছেন, ইমরান খান হবেন পাকিস্তান সেনাবাহিনীর ‘হাতের পুতুল’। তাঁর দাবি, পিটিআইয়ের প্রধানকে ক্ষমতায় বসানোর ছক কষে ফেলা হয় দুই বা তিন বছর আগেই।

‘দ্য হিন্দু’কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে রেহাম ওই ফলাফল সম্পর্কে বলেন, ‘ফল কী হবে তা আমি আগেই জানতাম।’ তাঁর মতে, নির্বাচন যদি অবাধ ও সুষ্ঠু হত, তাহলে ইমরানের জেতার কোনও প্রশ্নই উঠত না। খাইবার পাখতুনখাওয়া প্রদেশসহ কয়েকটি স্থানে পিটিআই এত ভাল করা অসম্ভব। কারণ, ওই সব স্থানে পিটিআইয়ের প্রাদেশিক সরকারের কোনো জনপ্রিয়তাই নেই।

ইমরান খানকে সেনাবাহিনীর প্রার্থী বলেও উল্লেখ করেন রেহাম খান। রেহাম ব্যাখ্যা দিয়ে বলেন, ‘নওয়াজ শরিফ যখন ভারতের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নে চেষ্টা করে যাচ্ছেন এবং চিন-পাকিস্তান অর্থনৈতিক করিডরের চালুর দিকে যাচ্ছিলেন, তখন সেনাবাহিনী হতাশ হয়েছে। তখনই নওয়াজ শরিফের বিদায়ের পথ তৈরি করতে থাকে সেনারা। আর এই সময়ে ইমরান হয়ে ওঠেন তাদের হাতের পুতুল।’

স্ত্রী হিসেবেও রেহাম সেনাবাহিনীর সঙ্গে ইমরানের সম্পর্কের কথা জানতেন। পাকিস্তানের নির্বাচন কমিশন ঘোষিত ফল অনুযায়ী, ইমরান খানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) ১১৭ আসনে জয়ী হয়েছে। নওয়াজ শরিফের গড়া দল পাকিস্তান মুসলিম লিগ (এন) পেয়েছে ৬৩টি আসন। আর বিলওয়াল ভুট্টো জারদারির পাকিস্তান পিপলস পার্টি (পিপিপি) জয়ী হয়েছে ৪৩টি আসনে। এ ছাড়া মুত্তাহিদা মজলিশ আমল (এমএমএ) পেয়েছে ১১টি আসন, গ্র্যান্ড ডেমোক্রেটিক অ্যালায়েন্স (জিডিএ) দুটি ও মুত্তাহিদা কওমি আন্দোলন-পাকিস্তান (এমকিউএম-পি) ছয়টি আসনে জয়ী হয়েছে।

৩০ জুলাই, ২০১৮ ২৩:২৬:৫৮