পাক বংশোদ্ভূত সাজিদ ব্রিটেনের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী!
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
রানির দেশের প্রশাসনিক প্রধানের পদ পেতে চলেছেন পাকি বংশোদ্ভূত সাজিদ জাভেদ। বর্তমানে তিনি প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে-র মন্ত্রীসভার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। সাজিদ জাভেদের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার যে সম্ভাবনা ক্রমশ উজ্জ্বল হচ্ছে তা নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে ইংল্যান্ডের প্রথম শ্রেণির সংবাদপত্রগুলিতে। গত এক মাস আগে থেকেই সেই সকল খবর নজর কেড়েছিল উপমহাদেশের উত্তসূরীর।রাজনৈতিক বুদ্ধি যে তাঁর প্রবল তীক্ষ্ণ সেই প্রমাণ একাধিকবার পেয়েছে ব্রিটেন। গত এক সপ্তাহ ধরে দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে নেওয়া সাজিদ জাভাদের একাধিক সাহসী এবং গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত ইঙ্গিত দিচ্ছে যে তিনিই হতে চলেছেন ওই দেশের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী।

ব্রেক্সিট সহ একাধিক ইস্যু নিয়ে উত্তাল হয়ে রয়েছে রানির দেশের রাজনীতি। প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে-র পক্ষে সেই সকল চাপ সামাল দেওয়া খুব একটা সুখকর হচ্ছে না। এই অবস্থায় তাঁর বড় ভরসা হচ্ছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাজিদ জাভেদ। সূত্রের খবর, একপ্রকার বাধ্য হয়েই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাজিদকে নিজের পদ ছেড়ে দিতে চাইছেন প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে।

১৯৬৪ সালে পকেটে মাত্র এক পাউন্ড নিয়ে পাকিস্তান থেকে ব্রিটেন চলে আসেন সাজিদের জনক আবদুল ঘানি জাভেদ। পাঞ্জাবি বংশোদ্ভূত তাঁর বাবা ছিলেন বাসচালক।। ব্রিটেনে এসে সাজিদের মা জিবায়েদ জাভেদ একটি দর্জির দোকান খোলেন। পাঁচ বছর পরে ১৯৬৯ সালে ল্যাঙ্কাশায়ারে পাঁচ ভাই-বোনের পরিবারের জন্মগ্রহণ করেন সাজিদ জাভেদ। ব্রিস্টলে বেড়ে ওঠা সাজিদ এক্সটার বিশ্ববিদ্যালয়ে অর্থনীতি ও রাজনীতি নিয়ে লেখাপড়া শুরু করেন।

মুসলিম সম্প্রদায়ের প্রতিনিধি সাজিদ জাভেদ-র এই রাজনৈতিক উত্থানকে স্বাগত জানিয়েছেন লন্ডনের মেয়র সাদিক খান। এই সাদিক খান আবার ওই শহরের প্রথম মুসলিম মহানাগরিক। ২০১৪ সালের অক্টোবর মাসে কলকাতায় এসেছিলেন সাজিদ জাভেদ। সেই সময় তিনি ইংল্যান্ডের সংস্কৃতি মন্ত্রী ছিলেন। দুই দিনের সফরে তিনি এসেছিলেন ভারতের সাংস্কৃতিক রাজধানীতে।

 

৩০ জুলাই, ২০১৮ ১১:০২:৪২