কিমের কাকুতি-মিনতিতে মন গলেছে ট্রাম্পের, দাবি মার্কিন কর্তার
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠক করতে কাকুতি-মিনতি করেছিলেন উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট! এমনটাই দাবি, মার্কিন প্রেসিডেন্টের আইনজীবী রুডি গিউলিয়ানির। ফক্স নিউজে এক সাক্ষাত্কারে বুধবার রুডি দাবি করেছেন, ১২ জুনের বৈঠক বাতিল হয়ে যাওয়ায়, নতুন করে বৈঠকের জন্য ট্রাম্পের কাছে কার্যত হাতজোড় করে কাতর আবেদন জানান কিম।

প্রসঙ্গত, উত্তর কোরিয়ার নাকের ডগায় সিওলে মে মাসে যৌথ সেনা মহড়া চালায় দক্ষিণ কোরিয়া এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ নিয়ে নরম মনোভা প্রকাশ করলেও, যৌথ মহড়া নিয়ে ফের হুমকি দেন কিম জং উন। তিনি বলেন, “আমেরিকা শান্তি চাইলে শান্তির পথে হাঁটবে তারা, যুদ্ধ চাইলে তার জন্যও প্রস্তুত।”

কিমের এই মন্তব্যের পর পুরনো শীতলতা ফিরতে শুরু করে পিয়ংইয়ং ও হোয়াইট হাউজের সম্পর্কে। পালটা হুঁশিয়ারি দিয়ে কিমের সঙ্গে বৈঠক থেকে সরে আসার কথা ঘোষণা করেন ট্রাম্প। উত্তর কোরিয়া পাকাপাকিভাবে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ না করা পর্যন্ত আলোচনা সম্ভব নয় বলে জানানো হয় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের তরফে।

এরপরই আরও তৎপর হয়ে ওঠে কিমের প্রশাসন। বৈঠক বাস্তবায়িত করতে পিয়ংইয়ং-এর কর্তারা আদা জল খেয়ে নেমে পড়েন। সূত্রের খবর, কিমের এই প্রচেষ্টায় সন্তুষ্ট হয়েই বৈঠকে সম্মতি দেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। আগামী ১২ জুনের বৈঠকের চূড়ান্ত প্রস্তুতি চলছে দুই দেশের। সিঙ্গাপুরে সেন্তোসা দ্বীপের ক্যাপেলা নামে পাঁচতারা হোটেলে কিম-ট্রাম্পের বৈঠকস্থল ঠিক হয়েছে।

 

০৮ জুন, ২০১৮ ০০:৪৪:২৪