'ভয়ঙ্করতম' বজ্রপাতের কবলে ব্রিটেন
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
লন্ডনে টেমস নদীর ওপর আকাশ


ব্রিটেনের আবহাওয়া অফিসের বরাত দিয়ে বিবিসি'র আবহাওয়া অনুষ্ঠান এবং অন্যান্য মিডিয়া বলছে শনিবার মধ্যরাত থেকে শুরু করে অন্তত ঘণ্টা চারেক ধরে দেশের বিস্তীর্ণ অঞ্চলে মুহুর্মুহু বজ্রপাতে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। চার ঘণ্টার মধ্যে ১৫ থেকে ২০ হাজারের মত বজ্রপাতের ঘটনা ঘটেছে। বিবিসির আবহাওয়া সংবাদের উপস্থাপক টমাস শ্যাফারনাকের শনিবার রাতের বজ্রপাতকে "মাদার অব অল থান্ডারস্টর্ম" অর্থাৎ ভয়ঙ্করতম বজ্রপাত বলে আখ্যায়িত করেছেন। "অবিশ্বাস্য! পাগলামি হচ্ছে।"

উত্তর লন্ডনের এক বাসিন্দা বিবিসি বাংলাকে বলেন, ব্রিটেনে ৪০ বছরের জীবনে বিদ্যুৎ চমকানোর এমন দৃশ্য তিনি দেখেননি।

"মুহুর্মুহু বিদ্যুৎ চমকাচ্ছিল। জানালা দিয়ে দেখছিলাম, এত ঘন ঘন বাজ পড়ছিল যে আকাশটা অন্ধকার হতেই পারছিল না।"

দমকল বাহিনীর কর্মকর্তাদের উদ্ধৃত করে লন্ডনের দৈনিক টেলিগ্রাফ বলছে, বজ্রপাতের ঘটনায় সাহায্য চেয়ে অন্তত ৫০০ টেলিফোন কল পেয়েছেন তারা। লন্ডনের কাছে স্ট্যানস্টেড বিমানবন্দরে বিমানে জ্বালানি তেল ভরার যন্ত্রপাতি বজ্রপাতের আঘাতে বিকল হয়ে যায়। ঐ বিমানবন্দরে বিমান চলাচল বিঘ্ন হচ্ছে ।

এসেক্স কাউন্টির স্ট্যানওয়ে নামক একটি এলাকায় রোববার বোরের দিকে বজ্রপাতে একটি বাড়িতে আগুন ধরে গেলে দমকলবাহিনী গিয়ে আগুন নেভায়। হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। কয়েক ঘণ্টা ধরে বিরল এই বজ্রপাতের পর মুষলধারে বৃষ্টি হয়েছে বহু জায়গায়। ওয়েলস এবং মধ্য ইংল্যান্ডের কিছু এলাকায় এক ঘণ্টার মধ্যে এক ইঞ্চিরও বেশি বেশি বৃষ্টিপাত হয়।

রোববার এবং সোমবার আরো বজ্রপাতের পূর্বাভাস দেওয়া হচ্ছে। ওয়েলস এবং ইংল্যান্ডের দক্ষিণ এবং মধ্যাঞ্চল এতে আক্রান্ত হতে পারে। বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার পাশাপাশি রেল যোগাযোগেও ব্যাঘাত ঘটতে পারে বলে সাবধান করা হচ্ছে। - বিবিসি বাংলা



 


২৭ মে, ২০১৮ ১৯:৪০:১১