প্রিন্স হ্যারির সঙ্গে বিয়ে, প্রচন্ড রেগে হবু রাজবধূর বাবা!
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
নতুন করে বিতর্ক তৈরি হয়েছে প্রিন্স হ্যারি ও মেগান মর্কেলের রাজকীয় বিয়ে ঘিরে৷ এবার বিতর্কের মূলে পাপারাৎজির দল৷ ১৯ তারিখে বিয়ে। কিন্তু সূত্রের খবর হবু রাজবধূ মেগান মর্কেলের বিয়েতে নাকি যোগ দিতে নারাজ তাঁর বাবা থমাস মার্কেল। কিন্তু কেন তাঁর এই সিদ্ধান্ত? মেগানের বাবা নাকি প্রচণ্ড রেগে রয়েছেন। তাঁর রাগের মূলে তাঁর পরিবারের কেউ নয়৷ এই ক্ষোভের মূলে রয়েছেন ব্রিটেনের পাপারাৎজিরা৷

ঠিক কি হয়েছে, তাহলে শুনুন৷ মেয়ে মেগান মর্কেলের রাজপরিবারে বিয়ে ঠিক হওয়ার পর থেকেই নাকি তাঁর পিছনে পাপারাৎজিরা ঘোরাফেরা করছে। যেখানেই যাচ্ছেন সেখানেই ক্যামেরা নিয়ে হাজির হয়ে যাচ্ছে তাঁরা।

দিন কয়েক আগে থমাসের কিছু ছবি মিডিয়ায় ছাপা হয়েছিল। সেটা দেখার পরেই রেগে যান তিনি। তার জেরেই নাকি মেয়ের বিয়েতে যোগ দিতে রাজি হচ্ছেন না থমাস। কি ছিল সেই ছবিতে?

কয়েকদিন আগে পাপারাৎজিদের ক্যামেরায় ধরা পড়েছিল মেয়ের বিয়েতে যোগ দেওয়ার জন্য টেলরের কাছে স্যুটের মাপ দিচ্ছেন থমাস। মেয়ে এবং হবু জামাইয়ের সঙ্গে ইন্টারনেট কাফেতে রয়েছেন তিনি। এমনকী ব্রিটেনের কোনও কাফেতে কফি খাচ্ছিলেন তিনি, সে ছবিও পাপারাৎজিরা তুলে প্রকাশ করেছিল। এরপরেই মারাত্মক রেগে গেছেন তিনি৷

তাঁর রাগ আর ক্ষোভকে প্রশমিত করতে বিবৃতি দিয়েছেন ব্রিটেনের রাজপরিবারের মুখপাত্র চার্লি প্রক্টর৷ তাঁর মতে ‘‌এটা একেবারেই ব্যক্তিগত বিষয়। তিনি অসুস্থ৷ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন৷ খুবই সাধারণ থাকতে ভালবাসেন থমাস৷ কিন্তু আচমকা প্রচারের আলোয় এসে পড়ায় অত্যন্ত বিব্রত হয়ে পড়েছেন তিনি৷ আর কয়েকদিন পরেই রাজপরিবারের বিশেষ দিন আসছে। আশাকরি ব্রিটেনবাসী সেটা বুঝবেন।’

যদিও মেয়ে মেগানের বিয়েতে তিনি যোগ দিচ্ছেন কিনা তা এখনও সুনিশ্চিত নয়। তবে মগান নিজে তাঁর এই বিশেষ দিনটিতে বাবা–মা দু’‌জনকেই পাশে চান।

 

 

১৬ মে, ২০১৮ ০০:১৯:০০