বেশিরভাগ মার্কিন নারী বিপরীত লিঙ্গের সঙ্গে একা খেতে চান না: জরিপ
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
মাইক পেন্স ও তাঁর স্ত্রী কারেন


যুক্তরাষ্ট্রের ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স যখন বলেছিলেন তিনি তাঁর স্ত্রী ছাড়া অন্য কোনো একলা নারীর সঙ্গে খেতে বসবেন না কখনো, তখন অনেকে চোখ কপালে তুলেছিলেন। অনেক আলোচনাও চলেছে এ নিয়ে। "কী পুরনো ধ্যানধারণা!" ইন্টারনেটে এমন মন্তব্যের ঝড়ও উঠেছে।কিন্তু এখন দেখা যাচ্ছে শুধুমাত্র মাইক পেন্সই নন, যুক্তরাষ্ট্রের অনেকে এমনটা ভাবেন। নিউ ইয়র্ক টাইমসের এক জরিপে দেখা যাচ্ছে, অর্ধেকের মতো নারী মাইক পেন্সের সঙ্গে একমত। আর ৪৫ শতাংশ পুরুষ তাঁর সঙ্গে একমত। আর যদি পানীয়ের প্রসঙ্গ আসে? সে প্রশ্নই আসেন না।শুধুমাত্র ২৯ শতাংশ নারী চিন্তা করে যে একা একা কোনো পুরুষের সঙ্গে খেতে বসা কোনো সমস্যার বিষয় নয়। যদিও মর্নিং কনসাল্টের সহায়তায় এই জরিপটিতে মাত্র সাড়ে তিন হাজার মানুষ অংশ নিয়েছে। তবে এই জরিপের ফলাফল গ্রহণযোগ্য বলে মত দিয়েছে ৬২ শতাংশ রিপাবলিকান , অন্যদিকে ৭১ শতাংশ ডেমোক্রেট বলেছে এমনটা হতে পারে। একইভাবে ধর্মীয়ভাবেও একলা নারী-পুরুষ বসে খাওয়াটা গ্রহণযোগ্য কিনা তা নিয়েও বিপরীতধর্মী মতামত পাওয়া গেছে। দেখা গেছে যারা বেশি শিক্ষিত তাদের কাছে এটা অস্বাভাবিক কিছু নয়। কিন্তু যারা এখনো কলেজে পড়া শুরু করেনি তাদের কাছে এমনভাবে খেতে বসার বিষয়টা গ্রহণযোগ্য নয়। এ নিয়ে বিবিসি পাঠকেরাও ভিন্ন ভিন্ন মত দিয়েছে। অস্ট্রেলিয়ার স্টিফেন যেমন মাইক পেন্সের উদাহরণ টেনে বলেছেন, তিনি তার বৈবাহিক জীবন ভালো রাখার চেষ্টা করছেন। তার সম্মান রাখছেন। "এটা আসলে বুদ্ধিমানের মতো চিন্তা। যে যুগে কার্দাশিয়ানের মতো মডেলকে স্ট্যান্ডার্ড ধরা হয় সেই যুগে মাইক পেন্সের এমন ভাবনা সত্যিই প্রশংসনীয়"-বলেন স্টিফেন।-বিবিসি


০৩ জুলাই, ২০১৭ ১০:৫৪:৫৮