লিবীয় বিমানের আরোহীরা মুক্ত, ছিনতাইকারীদের আত্মসমর্পণ
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
মাল্টায় অবতরণে বাধ‌্য করা লিবীয় বিমানের সব যাত্রীকে ছেড়ে দিয়ে ছিনতাইকারীরা আত্মসমর্পণ করেছে। মাল্টার প্রধানমন্ত্রী জোসেপ মাসকট এক টুইটে আত্মসমর্পণের পর দুই ছিনতাইকারীকে নিরাপত্তা বাহিনীর হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। টুইটারে বাংলাদেশ সময় রাত ৮টা ৪০ মিনিটে তিনি লিখেছেন, ছিনতাইকারীরা আত্মসমর্পণ করেছে। তাদেরকে হাজতে পাঠানো হয়েছে।

উল্লেখ,  বাংলাদেশ সময় শুক্রবার বিকেলে শতাধিক যাত্রীসহ লিবিয়ার বিমান ছিনতাই হয়। আফ্রিকিয়া এয়ারওয়েজের ওই ফ্লাইটে ১১৮ জন আরোহী ছিলেন। লিবিয়ার আকাশে থাকা অবস্থায় এয়ারবাস এ৩২০ বিমানটিকে ঘুরিয়ে নেওয়া হয়। দুই ব‌্যক্তি বোমা ফাটানোর হুমকি দিয়ে বিমানটির চালককে মাল্টায় যেতে বাধ‌্য করে।পরে মাল্টার পুলিশ বিমানটিকে ঘিরে রাখে।

মাল্টার প্রধানমন্ত্রী জানান, এয়ারবাস এ৩২০ উড়োজাহাজের ১১৮ আরোহীর মধ্যে যাত্রী ছিলেন ১১১ জন। যাত্রীদের মধ্যে ৮২ জন পুরুষ, ২৮ জন নারী এবং একটি শিশুও ছিল। আর বিমানের ক্রু ছিলেন সাতজন।

মাল্টায় অবতরণের পর টুইটারে দেওয়া এক পোস্টে ‘সম্ভাব্য ছিনতাইয়ের শিকার’ বিমানটির মাল্টায় অবতরণের কথা নিশ্চিত করেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী জোসেফ মাস্কাট।

ছিনতাইয়ের শিকার বিমানটি ছিল ‘আফ্রিকিয়াহ এয়ারওয়েজের’ এয়ারবাস এ-৩২০। বিমানটি মাল্টায় অবতরণের পর পরিস্থিতি মোকাবিলায় বিমানবন্দরে সেটি ঘিরে ফেলেন দেশটির নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা।

ছিনতাইকারীদের সঙ্গে সমঝোতার চেষ্টা করছে লিবিয়া ও মাল্টার কর্তৃপক্ষ। টুইটারে দেওয়া এক পোস্টে মাল্টার সাংবাদিক সেভিয়ার বালজান জানিয়েছেন, ছিনতাইকারীরা যাত্রীদের ছেড়ে দিতে এবং অস্ত্র সমর্পণে রাজি হয়েছে।

টুইটারে দেওয়া এক পোস্টে মাল্টা এয়ারপোর্টে ছিনতাইকৃত লিবীয় বিমানের অবতরণকে বেআইনি হিসেবে আখ্যায়িত করেছে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ। মাল্টা এয়ারপোর্টমুখী অন্যান্য বিমানের গতিপথ পরিবর্তন করা হয়েছে।

এ ঘটনায় জনগণকে শান্ত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন মাল্টার প্রেসিডেন্ট মেরি লুইস কোলেইরো। আর এ ঘটনাকে গভীর উদ্বেগজনক হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন দেশটির বিরোধীদলীয় নেতা সাইমন বুসুতিল। সূত্র: আল জাজিরা, আরটি।

 

২৩ ডিসেম্বর, ২০১৬ ২২:১৮:৪৮