জাপানি কুকুর নিলেন না পুতিন!
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন
কয়েক প্রজাতির কুকুর রয়েছে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের কাছে। কুকুর পালতে ভালোবাসেন দেশটির সাবেক এই গোয়েন্দা কর্মকর্তা। বেশিরভাগ কুকুর তিনি পেয়েছেন উপহার হিসেবে। তবে এবার জাপানি কুকুর পাওয়ার প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছেন তিনি।

শনিবার জাপান সরকারের পক্ষ থেকে পুতিনকে কুকুর উপহার দেওয়া হয়। কিন্তু পুতিন সেই প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছেন বলে বিবিসির এক খবরে জানানো হয়।

এ ব্যাপারে জাপানের এমপি কোইচি হাগুইদা বলেন, পুতিন এই উপহার কেন প্রত্যাখ্যান করলেন তা তিনি জানেন না।

এর আগে ২০১২ সালে জাপান পুতিনকে সে দেশের পাহাড়ি কুকুর আকিতা উপহার দেয়। সেটি ছিল একটি মেয়ে কুকুর। তার নাম ছিল ইউমে। সেটি এখনও পালছেন পুতিন। এবার ইউমের সঙ্গী হিসেবেই আরেকটি আকিতা উপহার দেওয়ার প্রস্তাব করে জাপান। কিন্তু সে প্রস্তাব ফিরিয়ে দেন পুতিন।

হাগুইতা ব্লগে লেখেন, আমরা আশা করেছিলাম ইউমের সঙ্গী হিসেবে আরেকটি আকিতা নেবেন পুতিন। কিন্তু পুতিন তাদের হতাশ করেছেন। রাজি হলে আগামী সপ্তাহে এক সম্মেলনে পুতিনকে আকিতাটি উপহার দিতেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী সিনজো আবে।

২০১০ সালে বুলগেরিয়ার প্রধানমন্ত্রী পুতিনকে বুলগেরিয়ান শেপার্ড কুকুর উপহার দিয়েছিলেন। সেটি ছেলে কুকুর। পুতিন সেটিকে ডাকেন বাফি নামে। এছাড়া যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্রের বিশেষ প্রজাতির কুকুর লেব্রাডরও ছিল পুতিনের। তার নাম ছিল কনি। রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই সইগু পুতিনকে ওই লেব্রাডর উপহার দেন। ২০১৪ সালে সেটি মারা যায়।

জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মেরকেলের সঙ্গে এক বৈঠকে কনিকে একবার সঙ্গে এনেছিলেন পুতিন। কিন্তু মেরকেল কুকুরে ভীষণ ভয় পান। ওই প্রেক্ষাপটে গণমাধ্যম তখন খবর প্রকাশ করেছিল যে, মেরকেলকে ভয় দেখাতেই কুকুর নিয়ে গিয়েছিলেন পুতিন। তবে চলতি বছরের শুরুতে এক জার্মান পত্রিকাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে পুতিন বলেন, তিনি মেরকেলের কুকুর ভীতির কথা জানতেন না। এ ঘটনার জন্য তিনি মেরকেলের কাছে দুঃখপ্রকাশ করেছিলেন। সূত্র : বিবিসি

১১ ডিসেম্বর, ২০১৬ ১৪:০৫:৪৮